প্রিয় গ্রাহক, আপনার মনের কথাগুলো বলার জন্য ধন্যবাদ। আপনার মাথার তালু জলে বিশেষ করে যখন মন খারাপ হয়, কেউ মিথ্যা কথা বলে। একটু কি বলবেন কবে থেকে আপনার এমটা হচ্ছে? এমন কিছু কি হয়েছে যার থেকে আপনার এই উপসর্গটা হচ্ছে।  আপনি কি এর জন্য ডাক্তার  দেখিয়েছেন?  আবেগের সাথে শারীরিক উপসর্গ ও দেখা যেতে পারে। হরমোনাল পরিবর্তন এর জন্য। আপনার কি মন খাড়াপ বা মিথ্যা কথা শুনলে  এর সাথে রাগ অনুভূত হয়? আপনার মন খারাপ হওয়ার গভীরতাটা কতটুকু থাকে? খুব বেশি কি? এর জন্য আপনমার দৈনন্দিন কাজে ব্যাঘাত ঘটে? কাছের বিশ্বস্ত কারো সাথে আপনার কথা গুলো শেয়ার করতে পারেন, এতে আপনি হালকা অনুভব করবেন। ডাইরিতে ও   ওয়ারেন,আপনার অনুভূতি গুলো এতেও আপনার কষ্টের অনুভুতিটা কমবে। তবে অবসসই পেজ গুলো ছিড়ে ফেলবেন। মন ভালো থাকে এমন কিছু করতে পারেন যেমন- গান শুনা, বই পড়া, মুভি দেখা।  প্রকৃতির সাথে সময় কাটানো। ফ্রেন্ড দেড় সাথে সময় কাটানো এতে আপনার একাকিত্ব কমবে।  আপনার কথা থেকে মনে হচ্ছে এই চিন্তা গুলো আপনার মাথায় থেকে যায়, বা বার বার আসে যার জন্য ঘুম আসে না। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত ২-৩ ঘণ্টা আগে থেকে চা/কফি খাওয়া বন্ধ করুন, খুব ভারি খাবার খেতে হলে সেটাও ঘুমানোর অন্তত ২-৩ ঘণ্টা আগেই সেরে ফেলুন। এর মধ্যে শুধু পানি কিংবা দুধ পান করতে পারেন। হাল্কা গরম দুধ পান করলে ভালো ঘুম হয়। ক্ষুধা পেটে নিয়েও আবার ঘুমাতে যাবেন না, হাল্কা কিছু খেয়ে নিতে পারেন। ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত ৩-৪ ঘণ্টা আগে থেকে ফোন, ল্যাপটপ এসবের স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকা বন্ধ করুন। মাথার কাছে ফোন রেখে ঘুমাতে যাবেন না। ফোন একটু দূরে টেবিলে বা বিছানার পাশে একটা চেয়ার/ মোড়া এনে তাতে রাখুন। বিকালে হাল্কা ব্যায়াম করুন। রেগে থাকলে, মন খারাপ থাকলে সেটা নিয়ে না ভেবে মন ভালো হয়ে যায় এরকম কিছু নিয়ে ভাবুন। হাতে ৩০ মিনিট সময় নিয়ে শুতে যান। আপনার যদি কোন শারীরিক সমস্যা না থেকে থাকে তবে এই পদ্ধতিগুলোতে খুব দ্রুতই কাজ দিবে।  আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে মায়া আপাকে জানাবেন রয়েছে পাশে সবসময় মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও