গ্রাহক,আমি কি আপনাকে কিছু প্রশ্ন করতে পারি?  আপনার এই সমস্যা টি কত দিন ধরে হচ্ছে? যৌন মিলনের সময় কি আপনার তাড়াতাড়ি বীর্যপাত হয়ে যায়? আপনি কি হস্তমৈথুন করেন? বা আপনার কি স্বপ্নদোষ হয়?যৌন মিলনের সময় আপনার যদি তাড়াতাড়ি বীর্যপাত হয়ে যায় তাহলে এই সমস্যা টা কে বলা হয় premature ejaculation. কিছু lifestyle পরিবর্তনের মাধ্যমে আপনি উপকৃত হতে পারেন যেমন--নিয়মিত ব্যায়াম করা-পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুম ও বিশ্রাম নেয়া।-নিয়মিত পুষ্টিকর খাদ্য খাওয়া।-সেক্স করার আগে বেশি করে foreplay করা।-আপনার smoking বা alcohol এর অভ্যাস থাকলে তা পরিহার করুন।-আপনি relaxation technique চেষ্টা করে দেখতে পারেন।- যৌন মিলনের সময় মাইন্ড কে একটু distract করার চেষ্টা করে দেখতে পারেন।-anxiety বা depression এ ভুগলেও এমন টা হতে পারে।কোন কিছু নিয়ে বেশি দুশ্চিন্তা করবেন না।গ্রাহক,সেক্স এর সময় nervousness এর কারণে বীর্যপাত আগে আগে হয়ে যেতে পারে।তাই এই বিষয়ে আপনার পার্টনার এর সাথে খোলাখুলি কথা বলে নিবেন। সেক্স করার সময় যদি মানসিক ভাবে আপনারা একে অপরের কাছাকাছি আসতে পারেন তাহলে এই সমস্যা গুলো আর হবেনা। সেক্স এর সময় কনডম ব্যবহার করলেও এই সমস্যাটি হবেনা।এতেও কাজ না হলে আপনি একজন Urology specialist এর কাছে যেতে পারেন।গ্রাহক, আপনার  অপর সমস্যাটি কে erectile dysfunction বলা হয়ে থাকে। অর্থাৎ লিঙ্গ ঠিক মত খাড়া হয়না।Erectile dysfunction (impotence)---এমন একটি অবস্থা যখন একজন পুরুষের লিংগ সফল ভাবে সেক্স করার মত যথেষ্ট শক্ত হয় না বা বেশীক্ষন শক্ত থাকে না বা একজন পুরুষের সেক্স করার ইচ্ছা জাগে না ।তাহলে ৩ টি উপসর্গের এক বা একাধিক লক্ষ্যন থাকলে , তাকে আমরা Erectile dysfunction বা (impotence)---এর রোগী বলতে পারি ।১/ লিংগ সফল ভাবে সেক্স করার মত যথেষ্ট শক্ত হয় না২/ লিংগ সফল ভাবে সেক্স করার মত যথেষ্ট সময় শক্ত থাকে না৩/ একজন পুরুষের সেক্স করার ইচ্ছা জাগে না ।বেশ কিছু কারণে এটি হয়ে থাকতে পারে যেমন-# Physical-উচ্চ রক্তচাপ-রক্তে চর্বি বেশি থাকলে-ডায়েবেটিস থাকলে-হরমোনাল কোন সমস্যা থাকলে-কোন ধরণের আঘাত পেয়ে থাকলে# মানসিক/ Psychological কারণ যেমন--anxiety -depression Physical কারণে হয়ে থাকলে আপনাকে সেই কারণ গুলো বাতিল করতে হবে যেমন নিয়মিত কোন ঔষধ খেয়ে থাকলে সেগুলো পরিবর্তন করতে হবে। মদ পানের অভ্যাস থাকলে টা পরিহার করতে হবে। কোন ধরণের শারীরিক অসুস্থতা থাকলে তার জন্য সঠিক চিকিৎসা নিতে হবে। কিন্তু Psychological কারণ হয়ে থাকলে আপনার একজন Psychologist এর সাথে দেখা করে counselling করাটা জরুরী।এছাড়া, উপরের নিয়মগুলো মেনে চলুন। পারফরম্যান্স ঠিক হচ্ছে কিনা, তা নিয়ে ভাবনার দরকার নেই। পার্টনারের সঙ্গে খোলাখুলি আলোচনা করুন। এ ব্যাপারে তারও যে ভূমিকা ও দায়িত্ব আছে, বুঝিয়ে বলুন। যে কোনো ধরনের ওষুধ সেবনের আগে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শমতো খাওয়া উত্তম।গ্রাহক, উত্তেজিত অবস্থায় পুরুষ লিঙ্গের গড় দৈর্ঘ্য হয়ে থাকে 4.7 থেকে 6.3 ইঞ্চি। অনেকের মতে পেনিসের গড় দৈর্ঘ্য ৫.১-৫.৯ ইঞ্চি আপনার পেনিস যদি লম্বার সর্বনিম্ন 4 (চার) ইঞ্চিও হয়ে থাকে তাহলেও আপনার স্ত্রীকে তৃপ্তি দিতে আপনার কোনো সমস্যা হবে না। অনেকে আবার এও বলে থাকেন স্ত্রীকে অরগাজম দিতে মাত্র ৩ ইঞ্চি লম্বা পেনিস হলেই যথেষ্ট । ইন্টারনেটে পেনিসের সাইজ পরিবর্তনের অনেক উপায় দেয়া আছে যার কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নাই। অপপ্রচারের ফলে সবারই এটা একটা ভুল ধারনা হয়ে গেছে ।কোন যাদুকরী তেল বা মালিশ পেনিস তেমন বড় করতে সক্ষম নয় । ক্ষুদ্র পেনিস বলতে ২.৭৬ ইঞ্চির চেয়ে ছোট পেনিস বুঝায় ।লিঙ্গের আকারের সাথে সেক্স পাওয়ারের কোনো সম্পর্ক নাই। আপনার যদি মনে হয় আপনার পেনিস স্বাভাবিক না তাহলে একজন ইউরলজিস্ট এর সাথে যোগাযোগ করুন।

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও