প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।পড়াশুনা কেন ভুলে যান সেইগুলর কারন বের করে এক জায়গায় লিখে রাখতে পারেন। পড়ার সময় মনে  ভিন্ন চিন্তা আসলে তা লিখে ফেলতে পারেন এবং পরে সেগুলো নিয়ে ভাবতে পারেন। একসময় শুধু মাত্র একটি বিষয়ে পড়ার উপর মনোযোগ দিন। পড়ার বিষয় গুলোকে মনে রাখার জন্য সে গুলোকে কবিতা বা সূত্র আকারে ছোট করে নিন যাতে সহজে সেগুলো মনে রাখতে পারে। প্রতিদিন একটি রুটিন মেনে ঘুমাতে যান এবং ভোর সকালে পড়ার চেষ্টা করবেন। কোন পড়া মুখস্ত করতে পারলে বা অংক না দেখে ভালভাবে সল্ভ করতে পারলে নিজেকে পুরস্কৃত করুন যেমন ভালো কিছু খাবার গ্রহণ করা, সাময়িক সময় টিভি দেখা বা অন্য কোন কাজ করা ইত্যাদি। এমন ভাবে পড়ুন যেন সেটি কাউকে বোঝাতে হবে সেটি ভেবে অর্থাৎ নিজেকে একজন শিক্ষক কল্পনা করে পড়তে পারেন। বন্ধুদের সাথে পড়ার বিষয়গুলো নিয়ে গ্রুপ ডিসকাশন করুন। কোন পড়া পড়ার পর আপনি কি বুঝলেন সেটি সংক্ষিপ্ত আকারে কোথাও লিখে রাখুন অথবা অন্য কাউকে বোঝানোর চেষ্টা করুন। পড়তে হবে নিয়মিত পড়ার মাঝে দীর্ঘদিন বা সময় গ্যাপ দিলে নর্মাল পড়ার ফ্লও নষ্ট হয়ে যেতে পারে তার ফলে হঠাৎ পড়তে বসলে বিরক্তির জন্য মাথা ব্যথা হতে পারে। পড়ার বিষয় গুলোর ইন্টারনেট অথবা ইউটিউবে ভিডিও দেখে আরো ভালোভাবে বোঝার চেষ্টা করতে পারেন। এভাবে পড়তে পারলে পড়া দীর্ঘ সময় মনে থাকবে এবং পরেও আরাম পাবেন। অর্থাৎ পড়া কে আনন্দদায়ক করতে পারলেই আপনার সমস্যাগুলো সমাধান হবে। এছাড়া আপনি একজন ডাক্তার কে দেখিয়ে নিতে পারেন যদি উপরোক্ত টিপসগুলো আপনার কোন কাজে না লাগে তো।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও