প্রিয় গ্রাহক, আমি বুঝতে পারছি আপনার বিভিন্ন কারনে মানুষিক চিন্তা বেড়েই যাচ্ছে আর এই কারনে আপনার মন বেশি সময় খারাপ থাকছে ও আপনি অনেক কষ্ট পাচ্ছেন।  বিভিন্ন কারনে আমাদের মানুষিক চিন্তা উদ্রেক হয়ই, যেমন ব্যক্তিগত, পারিবারিক ও সামাজিক ইত্যাদি।এছাড়া বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে আমাদের নতুন দায়িত্ব পালন করতে হয় ফলে চিন্তার পরিমান বেড়ে যাই। যেহেতু আমরা মানুষ আমাদের সমস্যা হতে পারে, আর একিইভাবে সে সমস্যা সমাধানের চেষ্টাও আমরা করে দেখতে পারি। আর সমস্যা কেন্দ্রীক চিন্তা আমাদের নিজেকে নতুন ভাবে আবিষ্কার করতে হেল্প করে থাকে। তাই সমস্যা মেনে নিয়ে, সমস্যার সমাধান করতে চেষ্টা করলে এক সময় সমাধান আসতেপারে ও আপনার চিন্তা দুরহতে পারে। তাই সমস্যাকে নিয়ে চিন্তা না করে সমাধানানের চেষ্টা করা বুদ্ধিমানের কাজ হতে পারে কিনা ভেবে দেখতে পারেন। দুশ চিন্তা থেকে বের হওয়ার জন্য আপনি যা করতে পারেন তা হল, নিজের ভাল গুন গুলো প্রতিদিন খাতাই লিখে রাখতে পারেন, এতে আপনি আপনার বাক্তিত্তে  শক্তিশালী দিকগুলো খুজে পেতে পারেন, এমন মানুষের সাথে মিশতে চেষ্টা করুণ যারা আপনার পাশে এসে দাড়াতে ইচ্ছুক। দুশ্চিন্তা যখন ছিলোনা তখন কিভাবে সময় কাটাতেন, সে বিষয়গুলো নিয়ে ভাবতে পারেন। এছাড়া আপনি যা করতে পারেন তা হল, ১। রুটিন মেনেচলুন য় সে অনুযায়ী নিজেকে পরিচালিত করতে চেষ্টা করতে পারেন   ৩। নিজেকে সময় দিন ৪। যোগাযোগ দক্ষতা বাড়ানোর চেষ্টা করুন ৫। সময়ের সদ্ব্যবহার করুন। ৬। একসাথে অনেক কাজ করা থেকে বিরত থাকুন। ৭। বন্ধুদে, পরিবারের সাথে যুরে মন ভাল করা যেতে পারে। পারে। যা আপনাকে ভাল থাকতে হেল্প করতে পারে। আর সবসময় নিজের সম্পর্কে ও পৃথিবী সম্পর্কে ইতিবাচক চিন্তা নিজেকে ভাল রাখার অন্যতম উপায়। ধন্যবাদ, মায়া আপা।  

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও