প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া শপ

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক আপনাকে ধন্যবাদ।  আমি কি আপনাকে কিছু প্রশ্ন করতে পারি? আপনার বয়স কত? আপনার কি চুলকানো হয়?  

অনেকের হঠাৎ করেই হাতে, মুখে বা ত্বকের বিভিন্ন জায়গায় সাদা দাগ দেখা যায়। এগুলু ফাংগাল ইনফেকশন থেকে হয়, অতিরিক্ত ঘামলে , অপরিষ্কার থাকলে, শরীররে রগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমেগেলে এই ধরনের রোগ হতে পারে। কিছু ঘরোয়া পদ্ধতিতে এর সমাধান দেয়া হোল -

১. নারকেল তেল: ত্বকের যেকোন সমস্যা সমাধানেই নারকেল তেল অব্যর্থ। ত্বকের যে অংশ সাদা হয়ে গিয়েছে, দিনে তিন থেকে চারবার সেখানে নারকেল তেল লাগিয়ে হাল্কা করে ম্যাসাজ করুন। দেখবেন সাদা দাগ আস্তে আস্তে হাল্কা হয়ে আসছে।

২. তামা: শরীরে তামা ঘষতে হবে না। তবে শরীরে মেলানিন তৈরি করতে তামার জুরি নেই। রাতভর তামার কোন পাত্রে পানি ভরে রাখুন। পরদিন সকালে খালি পেটে সেই পানি খান। কিছুদিনের মধ্যেই পার্থক্যটা নজরে আসবে।

৩. নিম: রক্তকে পরিশ্রুত করতে নিমের নাম নেন না এমন বাঙালি পাওয়া ভার। চর্মরোগেও নিম পাতা বিশেষ কার্যকরী। বাটারমিল্কের সঙ্গে নিমপাতা বাটা মিশিয়ে সাদা দাগের উপর লাগান। ভাল করে শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার করে নিন। চাইলে নিম তেলও ব্যবহার করতে পারেন।

৪. হলুদ: ত্বকের সংক্রমণে আরেক অব্যর্থ হলুদ। সর্ষের তেলের হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে তা সাদা অংশে প্রয়োগ করুন। দিনে দু’বার এই প্রলেপ লাগান।

৫. অ্যাপল সিডার ভিনিগার: পানির সঙ্গে কয়েক ফোঁটা অ্যাপল সিডার ভিনিগার মিশিয়ে ত্বকে লাগান। সঙ্গে এক গ্লাস পানিতে এক চামচ অ্যাপল সিডার ভিনিগার মিশিয়ে খান।

৬. কালো তুলসি: কালো তুলসির পাতা বেটে ত্বকের সাদা অংশে লাগান। উপকার পাবেন।

 আর আপনি যদি বেশি ঘামেন তাহলে বার বার ঘাম মুছে রাখবেন অথবা কাপর পালটে ফেলবেন, তাহলে আর এই সমস্যা হবেনা।

  যদি চুলকানি বেশি হয় তাহলে ডাক্তার এর সাথে যোগাযোগ করতে হবে। চুলকানির সাথে যদি শ্বাসকষ্ট থাকে , শরীর ফুলে যায় , রাশ থাকে তাহলে ডাক্তার এর সাথে দ্রুত যোগাযোগ করতে হবে ।

আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।

আর কোন প্রশ্ন থাকলে , মায়া আপাকে জানাবেন।

রয়েছি পাশে সবসময়, মায়া আপা।

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও