মায়া আপাতে আপনার মনের একান্ত কথাগুলো শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ প্রিয় গ্রাহক।  গ্রাহক একটা মেয়ে যখন মা হন তখন তাকে অনেকগুলো সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। প্রথমত, তার শারীরিক কিছু কষ্ট থাকে। শরীরে কিছু ভাঙ্গা গড়া হতে থাকে। হরমোনাল কিছু পরিবর্তন আসে। অনেক কিছু না জানা না বুঝা দোদুল্যমানতা তার ভেতরে কাজ করে। এর সঙ্গে সঙ্গে তার ভেতরে কিছু বৈকল্য বা মানসিক অস্বাভাবিকতা কাজ করে। তখন সে কিছুটা আনন্দে থাকে, কিছুটা হতাশায় থাকে, একটা কষ্ট দীর্ঘ সময় নেওয়ার কারণে কিছুটা বিরক্তও থাকে। মেয়েরা এ সময়টায় অনেক কিছু নিতে পারে না। অনেক কিছু শেয়ার করতে পারে না। এ সময় তারা খুব বেশি তার স্বামীকে কাছে পেতে চান বা তার কাছের মানুষকে আগলে ধরতে চান। কিন্তু বেশীরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় তারা সেই সুযোগ পান না। তখন তাদের মধ্যে বিষণ্ণতা তৈরি হতে থাকে। তিনটি ট্রাইমেস্টারে বিভিন্ন রকমের মানসিক ও শারীরিক পরিবর্তন দেখা যায়। হরমোনাল পরিবর্তনের কারনে প্রথম ও দ্বীতিয় ট্রাইমেস্টারে যেমন যৌন আকাঙ্খা বেড়ে যেতে পারে তেমনি তৃতীয় ট্রাইমেস্টারে এসে তা কমে যেতে পারে। এছাড়াও প্রসব পরবর্তী ৬ সপ্তাহেও মেয়েদের মধ্যে যৌন আকাঙ্খা কমে যায়। বিভিন্ন কারনে এমন হতে পারে। যেমন - প্রসবজনিত কাটাছেড়া, ক্ষত এগুলো থেকে সেরে উঠা, গর্ভধারণ ও প্রসব পরবর্তী অবসাদ, হরমোনাল লেভেলের পরিবর্তন, আবেগের তারতম্য, মাতৃত্ব জনিত উদ্বেগ, পাশাপাশি পারিবারিক ঝামেলা ইত্যাদি। এমন অবস্থার পরিবর্তন হতে সাধারণত কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। এ সময় গুরুত্বপূর্ণ হল আবেগের ভারসাম্য বজায় রাখা, শারীরিকভাবে আরামদায়ক ও রিল্যাক্সড থাকা। আপনাদের দুজনেরই প্রয়োজন এসময় ধৈর্য্য ধারন করে একে অপরের পাশে থাকা। একে অপরকে মানসিকভাবে সঙ্গ দিন। এই অবস্থায় হতাশ না হয়ে এর সাথে নিজেদের মানিয়ে চলার চেষ্টা করতে পারেন। এ বিষয়গুলো নিয়ে তার সাথে খোলাখুলি কথা বলুন। প্রয়োজনে কাপল কাউন্সেলিং এর সাহায্য নিতে পারেন। শুভ কামনা আপনাদের জন্য। আর কোন প্রশ্ন থাকলে আমাদের লিখুন। পাশে আছি সবসময়, মায়া আপা।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও