প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। স্বামী-স্ত্রী মিলনের ফলে অথবা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের কারণে অথবা অপরিষ্কার অপরিচ্ছন্নতার কারণে এমন প্রদাহ হয়ে থাকে৷দুটি কারণে প্রদাহ হতে পারে[১] অসংক্রমিত প্রদাহঃ যৌনি পথের স্রাব পরীক্ষা করলে কোনরকম জীবাণু পাওয়া যায় না৷ স্বামী-স্ত্রীর মিলন ছাড়া এ রোগ একদেহ হতে অন্য দেহে সংক্রমিত হয় না৷এ ধরনের প্রদাহের উৎস হচ্ছেযৌনি পথের অপরিষ্কার অপরিচ্ছন্নতাচর্মরোগমূত্রতন্ত্রের সংক্রমনপুষ্টির অভাবেগর্ভাবস্থায়অপরিষ্কার এবং আটসাট পায়জামা বা প্যান্ট ব্যবহার করলেজন্ম নিয়ন্ত্রণে যৌনি পথে কোন জেলি বা কপার টি ব্যবহার করলে[২] সংক্রমিত প্রদাহঃ যে প্রদাহ এক দেহ হতে অন্য দেহে সংক্রমিত হয় তাকে সংক্রমিত প্রদাহ বলে৷ এ প্রদাহ কে আবার দুভাগে ভাগ করা যায়৷নির্দিষ্ট ব্যাকটেরিয়া দ্বারা গনোরিয়া, সিফিলিস ইত্যাদি৷নির্দিষ্ট ছত্রাক দ্বারা: ট্রাইকোমোনাল, মনিলিয়াল ইত্যাদি৷লক্ষণপ্রস্রাবে জ্বালা-পোড়া থাকতে পারে৷জ্বর থাকতে পারে৷যোনিপথে দুর্গন্ধ যুক্ত পাতলা সাদাস্রাব থাকে৷যোনিপথে ফোলা ও লাল দেখা যেতে পারে৷যোনিপথের স্রাব পরীক্ষা করলে নির্দিষ্ট জীবাণু পাওয়া যাবে৷চিকিৎসা:দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ খেতে হবে৷ অন্যথায় পরে নানা জটিলতা দেখা দিতে পারে৷প্রতিরোধইতিমধ্যে আপনার ব্যক্তিগত পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে সচেতন হতে হবে৷পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে৷রোগীকে প্রচুর পানি খেতে হবে৷বিশ্রাম নিতে হবে৷রোগ মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত স্বামী সহবাস থেকে বিরত থাকতে হবে অথবা স্বামী সহবাসের সময় স্বামীকে কনডম ব্যবহার করতে হবে৷আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও