Internet Org

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত

আপা সালাম নিবেন। আমার এখন ৩৩ সপ্তাহের pragnancy চলছে। আমার আগে ডায়েবেটিস ছিলনা। ২ দিন আগে GTT ও HbA1c পরীক্ষা করালে ফলাফল পাওয়া যায় নিম্নরূপ : P Glucose (F)     -       5.4 P Glucose 2 hrs AG.     -     10.1 Glycosylated Haemoglobin (HbA1c)    -    6.0 কনসিভ করার পর আমার ওজন ছিল 72 kg বর্তমানে আমার ওজন 85 kg। এই অবস্থায় আমার কি কি খাওয়া উচিত ও কি কি খাওয়া অনুচিত সে সম্পর্কে জানালে কৃতজ্ঞ থাকব।

Internet Org  প্রশ্ন করা হয়েছে Oct 23, 2017

প্রশ্নের কোড নম্বর 434105

noodles Pran 728x90 adv3

প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।প্রেগন্যান্সির ডায়াবেটিস বিশেষ এক ধরনের ডায়াবেটিস, যেটি কিনা কেবল প্রেগন্যান্সিতেই হয়ে থাকে। হরমোনের লেভেল ও নতুন শারিরীক পরিবর্তনের কারনে মায়ের শরীর সঠিক পরিমান ইনসুলিন তৈরী করতে ব্যার্থ হয়।ডায়াবেটিস শুনেই আঁতকে উঠার কোন কারন নেই। এর মানে এই না যে এটা নিয়ন্ত্রনযোগ্য না বা বাচ্চারো ডায়াবেটিস হবেই।  তিন বেলার বড় তিনিটি খাবারকে ভেঙ্গে পাঁচটা খাবারে পরিনত করুন। একেবারে বেশী না খেয়ে পরিমানে অল্প করে বেশী বার খান। এটি রক্তের গ্লুকোজের লেভেল নিয়ন্ত্রনে রাখতে সাহায্য করবে। শর্করার পরিমান কমিয়ে প্রোটিন, হেলদি ফ্যাটের ইনটেক বাড়ান। প্রচুর শাক-সবজি, সালাদ যোগ করুন প্রতিদিনের ডায়েটে। মিষ্টি জাতীয় খাবারে লাগাম টানুন। দুধ বা দুধ জাতীয় খাবার অবশ্যই রাখুন।প্রেগন্যান্সিতে এক একজন এক একরকমের ওয়েট গেইন করে, যেটা নির্ভর করে গর্ভধারনের আগে মায়ের ওজন কত ছিলো, তার উপর। কতটুকু ওয়েট গেইন আপনার জন্য স্বাস্থ্যকর তা আগেই ডাক্তারের কাছ থেকে জেনে নিন। এতে মাত্রাতিরিক্ত ওজন গেইন করা থেকে দূরে থাকতে পারবেন।জটিলতাবিহীন সাধারন প্রেগন্যান্সিতেও যতবেশী এক্টিভ থাকবেন, ততই ডেলিভারীর জন্য উত্তম। আর বিশেষ করে গর্ভাবস্থায় ডায়াবেটিস থাকলে এক্টিভ থাকাটা আবশ্যক। প্রতিদিনের ফিজিক্যাল এক্টিভিটি রক্তের গ্লুকোজের পরিমান নিয়ন্ত্রন করে। দুপুরের এবং রাতের খাবারের উপর হাঁটা জরুরী। এছাড়া প্রেগন্যান্সীর ট্রাইমিষ্টার বুঝে ডাক্তার এর পরামর্শ নিয়ে  হালকা এক্সারসাইজ করা দরকার।যদি শরীরে কোনভাবেই গ্লুকোজের লেভেল ঠিক না থাকে, তাহলে প্রয়োজনবোধে ডাক্তারের পরামর্শে বাইরে থেকে ইনসুলিন নিন। প্রেগন্যান্সির ডায়াবেটিস সাধারনত বাচ্চার ডেলিভারীর পর ভালো হয়ে যায়। তবে ব্যতিক্রম হিসেবে কারোটা টাইপ-২ ডায়াবেটিসের মতো থেকে যায়। সন্তান প্রসবের পর ডায়াবেটিস না থাকলে তিন/চার মাস পর আবার ফলো আপ করা প্রয়োজন। সাধারনত একবার প্রেগন্যান্সিতে ডায়াবেটিস হলে পরবর্তী প্রেগন্যন্সিতেও হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। তাই এই ডায়াবেটিস, ডেলিভারীর পর চলে গেলেও প্রপার ডায়েট, নিয়মিত এক্সারসাইজ, মোটকথা স্বাস্থ্যকর জীবন অাচরন মেনে চলা উচিত।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া আপা ।

  উত্তর দেয়া হয়েছে Oct 23, 2017

প্রশ্নের কোড নম্বর 434105


মন্তব্য

circle
circle
circle
circle
circle
circle
circle
circle
circle
circle
circle
circle
circle

Asker

Oct 24, 2017

আপা উপরোক্ত প্রশ্নের উত্তরটা কি পাওয়া যাবে?

Anonymous

Oct 26, 2017

আপা দিনে কত বার প্রসাব করা স্বাভিক??

Anonymous

Oct 26, 2017

বলেন আপা

Anonymous

Oct 26, 2017

ফালতু এক্তা সাইড

Anonymous

Oct 26, 2017

Qus korle akbar reply ase r reply Kora jina

Anonymous

Oct 26, 2017

bollam pet betha amk Qus korlo kon pase betha ame bollam bam pase r kono ans ni..aigula ki

Anonymous

Oct 30, 2017

মায়া আপা কিছু তো বলে না???

Anonymous

Nov 1, 2017

hi

Anonymous

Nov 4, 2017

Apni to kono reply den na

Anonymous

Nov 7, 2017

হ! ফ

Anonymous

Nov 8, 2017

আপা আমার স্ত্রীর সরিল সব সময় গরম থাকে কি করবো

Anonymous

Nov 10, 2017

amar chul pore jas say.amar bois 25 cholo peke jas say.akhon ami ki korte par?

Anonymous

Nov 16, 2017

rate ghom ashena ki korbo


পরিচয়বিহীন

সম্পর্কিত নিবন্ধ সমূহ

  • list শিশুকে দুর্ঘটনা থেকে নিরাপদ রাখুনঃ ফার্স্ট এইড
  • list শিশুদের ভালোর জন্য প্রাত্যহিক সূচির গুরুত্ব