প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।শরীরের যে কোন জায়গা ফাংগাস দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে অধিকাংশ ক্ষেত্রে যাকে দাদ বলা হয়। এই আক্রমণ মাথার চামড়ায়, হাত-পায়ের আঙ্গুলের ফাঁকে, কুঁচকিতে হতে পারে। এটা খুব ছোঁয়াচে রোগ।লক্ষণ :আক্রান্ত স্থান চাকার মত গোলাকার হয়, এবং চুলকায় ।মাথায় দাদ দেখতে গোলাকার হয়, আক্রান্ত স্থানে চুল কমে যায় এবং প্রায়ই থাকে না ।হাত বা পায়ের নখে ফাংগাস আক্রান্ত করলে নখের উপরিভাগ পুরু হয়, এবং মসৃণতা নষ্ট হয় ।নখের পাশে পনি জমে যায় এবং অনেক সময় নখ ভেঙ্গে যায় ।প্রতিকার :সাবান ও পানি দিয়ে প্রতিদিন ধোয়াই দাদ থেকে মুক্তি পাবার সহজ উপায় আক্রান্ত স্থান শুকনো রাখা জরুরীচিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা করাতে হবে অনেক সময় ব্যবহৃত সাবান থেকেও দাদ হতে পারে। সেক্ষেত্রে সাবান ব্যবহার কিছুদিন বন্ধ রাখতে হবেপ্রতিরোধ ব্যবস্থা :ফাংগাস আক্রান্ত ছেলেমেয়েদের অন্য কোন সুস্থ্য ছেলেমেয়েদের সঙ্গে একত্রে খেলতে বা ঘুমাতে দেয়া উচিত নয়রোগীর ব্যবহৃত কাপড় চোপড় ও চিরুণী ভাল ভাবে পরিষ্কার না করে অন্য কারো ব্যবহার করা উচিত নয়রোগ প্রকাশ পাওয়া মাত্র চিকিৎসা করাতে হবেআশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও