প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।প্রথমেই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ও সাধুবাদজানাচ্ছি আমাদের কাছে মানসিক সহায়তা চাওয়ার জন্য। আপনার এই পদক্ষেপ প্রমাণ করে যেআপনি হাল ছেড়ে দেন নাই, আপনি চেষ্টা করছেন নিজেকে সহায়তা করার জন্য। আর কোনপরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসার জন্য এই ইচ্ছা শক্তি ও সচেতনতার জায়গাটি খুবই গুরুত্বপুর্ন। আমি বুজতে পারছি আপনার পরিস্থিতিটা। আমিঅনুভব করতে পারছি আপনার কষ্টের ও উদ্বেগ এর জায়গাটা।  কি কারনে আপনি হঠাৎ করে দুঃশ্চিন্তা ও আতঙ্কে পড়ে যান ? আপনি বলছেন যে কোন কারণ ছাড়াই, আপনি কিছুই বুঝতে পারেন না। দেখুন কারণ ছাড়া কোন কিছুই হয় না। হয়ত আপনি কারণটা খুঁজে পাচ্ছেন না, আপনি খেয়াল করে দেখতে পারেন। একবার না হলে আপনি অন্য ভাবে খুঁজে দেখতে পারেন।  আপনি কি কোন কিছু নিয়ে হতাশ, বিষণ্ণ বা দুশ্চিন্তা করছেন? কেউ কি আপনাকে কষ্ট দিয়েছে? আপনার প্রত্যাশা অনুযায়ী হয়নি এমন কিছু কিহয়েছে? খুঁজে দেখতে পারেন।কারণ আপনার স্বাভাবিক হওয়ার জন্য , যেকারনে আপনার দুঃশ্চেন্তা বা বা আতঙ্ক লাগে সেটা নিয়ে প্রথমে কাজ করা দরকার। আমি বুঝতেপারছি আপনার অবস্থাটা। আমিঅনুভব করতেপারছি, আপনি একটা প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যেদিয়ে যাচ্ছেন এবং মানসিক ভাবে কষ্টেআছেন।  আমাদের জীবনের পথে চলতেচলতে অনেকধরণের অভিজ্ঞতা হয়। কিছুভাল, কিছু থাকে মন্দ।ভাল মন্দএই দুটুনিয়েই আমাদের জীবন। ভালঅভিজ্ঞতা আমাদেরকে সুখ দেয়, আর খারাপ গুলো আমাদেরকে কষ্ট দেয়।আমরা চাইলেই খারাপ মুহূর্ত গুলোকে জীবনথেকে মুছেফেলতে পারবনা বাভুলেও যেতেপারবন। তবেআমরা একটাজিনিস পারবআমাদের কষ্টগুলোকে কমিয়েসেই জায়গাই ভাল কিছুঅনুভূতি নিয়েআসতে পারব।জীবনের অভিজ্ঞতাগুলো,মানুষ গুলোথাকবে আমাদের জীবনে, তবে এগুলোকে একপাশে রেখে ভালথাকতে পারা, সামনে এগিয়েযাওয়া গুরুত্বপুর্ন। তার জন্যআপনি কিছুপদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। নিজের প্রতিমনোযোগ দিতেপারেন। ৪. নিজেকে ব্যস্ত রাখতেপারেন। কিকি করতেআপনার ভাললাগে? কি করে আপনিআনন্দ পান? আপনার পছন্দের কাজ গুলোকি কি? আপনার জীবনের জন্য কোনকাজ গুলোগুরুত্বপূর্ন সেগুলো ভেবে একটাতালিকা তৈরিকরতে পারেন। এবং সেঅনুযায়ি আপনারপরবর্তি করনীয়ঠিক করতেপারেন। নিজেরপ্রতি এবংআপনার ভবিষ্যৎ জীবনের প্রতিগুরুত্ব দিতেপারেন।৫. আপনার সামাজিক কার্যক্রম বাড়াতে পারেন। আপনার বন্ধু- বান্ধব, আত্নীয়- স্বজন ও আপনার অন্যান্য কাছের মানুষদের সাথে যোগাযোগ বাড়িয়ে দিতেপারেন। নতুননতুন মানুষের সাথে মিশতেচেষ্টা করতেপারেন। এছাড়াঅন্যান্য সামাজিক কার্যক্রম যেমনগরিব বাচ্চাদের পড়ানো, কাউকে সাহায্য করা ...... ইত্যাদি আপনারপছন্দ , সুযোগ ও সামর্থ অনুযায়ী চাইলেকরতে পারেন। ৬. নিয়মিত খাবার খাওয়া, প্রয়োজন মনঘুমানো ও প্রতিদিন একটানির্দিষ্ট সময়শরীর চর্চাকরতে পারেন। এগুলো আপনাকে শারীরিক ভাবেসুস্থ রাখারপাশাপাশি মানসিক ভাবেও উদ্যমি রাখতে সহায়তা করবে। ৭. একটা প্রতিদিনের রুটিনতৈরি করতেপারেন এবংসেটাকে মেনেচলার অভ্যাস তৈরি করতেপারেন। ৮. আপনার করনীয় কাজগুলোকে ছোটছোট অংশেভাগ করতেপারেন, তাহলে আপনি আপনারঅগ্রগতিটা ভালভাবে বুঝতেপারাবেন। ৯. আপনি প্রয়োজন মনেকরলে ভালকোন কাউন্সেলিং সাইকোলজিস্ট এরসাথে কথাবলতে পারেন, দেখাতে পারেন।১০. এছাড়া প্রয়োজন মনেকরলে "মায়া আপা"র  নতুন সার্ভিস হ্যালো"মায়া" তে মানসিক স্বাস্থ্য,সম্পর্কে জটিলতা, দুশ্চিন্তা অথবাহতাশা নিয়েসরাসরি ফোনএ কথাবলতে পারেনএকজন মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক কাউন্সেলরের সাথে।- প্রতিটি ফোন সেশন ৩০ মিনিটের, চার্জ ৫০ টাকা- আপনার সকল তথ্য গোপন রাখা হবে - সেশন বুক করতে ইনবক্স করতে পারেন মায়া আপার ফেইসবুক পেইজে। তবে একটাজিনিস খেয়ালরাখবেন কারোজন্য বাকোন কিছুরজন্য জীবন কখনোথেমে থাকেনা। জীবনতার নিজস্ব ছন্দে এগিয়েচলে।   ভালো থাকুন, আর নিজেকে সব থেকে বেশী ভালোবাসুন। কারণ আপনারথেকেআপনাকে বেশীআর কেউভালোবাসতে পারবেনা।  আপনাকে আবার ও ধন্যবাদ আমাদের কে বলার জন্যও আমাদের কাছে সহায়তা চাওয়ার জন্য। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও