প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।ডিপ্রেশন (Depression ) শব্দটির মানে দাঁড়ায় বিষণ্নতা বা মনমরা। ডিপ্রেশন একটি মানসিক রোগ যা নিরানন্দ, অপরাধবোধ, ঘুমের অসুবিধা বা ক্ষুধার সমস্যা, কমশক্তি, দুর্বল মনোযোগ ও কৌতূহল হারিয়ে ফেলার একটি ক্রমাগত অনুভূতি ঘটায়। একে মেজর ডিপ্রেসিভ ডিসঅর্ডার বা ক্লিনিকাল বিষণ্নতাও বলা হয়। কেউ যেভাবে অনুভব করে, চিন্তা করে এবং আচরন করে ডিপ্রেশন সেই প্রক্রিয়াকে নাড়া দেয়। বিভিন্ন মানসিক এবং শারীরিক সমস্যা ঘটাতে পারে। এতে যে কারো দৈনন্দিন স্বাভাবিক কাজের অসুবিধা হতে পারে। মাঝেমাঝে যে কারো মনে হতে পারে জীবনে বেঁচে থাকার যেন সার্থকতা নেই। ডিপ্রেশন বিমর্ষ বা দু:খবোধ থেকে ভিন্ন হয়ে থাকে। নিরানন্দ হচ্ছে এমন কিছু যা প্রত্যেকে সাধারণভাবে একটি নির্দিষ্ট কারণে একসময়ে অথবা অন্যসময়ে উপলদ্ধি করে। যে ব্যক্তি ডিপ্রেশনে ভোগেন তিনি দুশ্চিন্তা, আশাহীনতা, নেতিবাচকতা, অক্ষমতার তীব্র আবেগ বা অনুভুতির অভিজ্ঞতা লাভ করবেন। এই অনুভূতিগুলো চলে যাওয়ার পরিবর্তে তাদের সাথে থেকে যায়। লক্ষণ আত্মবিশ্বাস ও আত্মসম্মান হারিয়ে ফেলা, জেদি, বিষণ্ণতায় সবসময় ভোগা, ক্লান্তি ও শক্তিক্ষয়, মনোযোগের অসুবিধা, সবসময় উদ্বিগ্ন বোধ করা, অন্যকে এড়িয়ে চলা মাঝেমধ্যে নিজের নিকটস্থবন্ধুও, আশাহীনতা ও অসহায়ত্ব বোধ করা, ঘুমের সমস্যা, অপরাধবোধ, নিজেকে অযোগ্য মনে করা, বিরক্তি বোধ, চাপল্য, যে কোন কাজ কঠিন মনে করা, আত্মহত্যা ও মৃত্যু নিয়ে চিন্তা করা, নিজের ক্ষতি করার চেষ্টা করা, শারীরিক যন্ত্রণা ও ব্যথা বোধ করা, যৌনসমস্যা, ক্ষুধামন্দা, মাথাব্যথা, হজমের সমস্যা ইত্যাদি ডিপ্রেশনবিশিষ্ট রোগীর মধ্যে দেখা যায়। প্রকারভেদ বিভিন্ন ধরনের depressive রোগ আছে-মেজর ডিপ্রেশন- একজন ব্যক্তির জীবদ্দশায় শুধুমাত্র একবার ঘটতে পারে, কিন্তু বেশির ভাগক্ষেত্রে বা প্রায় একজন ব্যক্তির কয়েকটা পর্ব থাকতে পারে। পারসিসটেন্ট ডিপ্রেসিভ ডিসঅর্ডার- বিষণ্ণ মেজাজ যা কমপক্ষে ২ বছর স্থায়ী হয়।কিছু ধরনের ডিপ্রেশনের আছে যা সামান্য ভিন্ন। সেগুলো হল-সাইকোটিক ডিপ্রেশন(মানসিকবিষণ্নতা), পোস্ট-পারটাম ডিপ্রেশন(প্রসবেরবিষণ্নতা), সীজনাল অ্যাফেকটিভ ডিসঅর্ডার(ঋতু আবেগপূর্ণ ব্যাধি)। এছাড়াও রয়েছে বাইপোলার ডিসঅর্ডার। চিকিৎসা বিষণ্নতার চিকিৎসার জন্য অবশ্যই প্রথমে একজন ভালো অভিজ্ঞ Psychiatrist (MD) বা Psychologist (MA/PhD) এর শরনাপন্ন হতে হবে। বিষণ্নতার সবচেয়ে সাধারণ চিকিৎসার মধ্যে আছে ঔষধ এবং মনঃসমীক্ষণ (psychotherapy)। ঔষধের মধ্যে আছে Antidepressants। পাশাপাশি Electroconvulsive therapy and other brain stimulation therapies। একবার রোগ নিরুপনের পর ডিপ্রেশনবিশিষ্ট ব্যক্তির বহু উপায়ে চিকিৎসা করা যায়। চিকিৎসকের শরনাপন্ন হওয়ার পর প্রেসক্রাইব করা ঔষধের বিস্তারিত তথ্য জানতে চাইলে ফার্মাসিস্টের পরামর্শ নিতে পারেন।আমাদের দায়িত্বপ্রিয়জন বা বন্ধুকে সাহায্য করার জন্য মানসিক সমর্থন, বোঝানো, ধৈর্য ও অনুপ্রেরণা ইত্যাদি পেশ করতে পারি। ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট চাওয়ার ক্ষেত্রে সহায়তা প্রদান করতে পারি।প্রিয়জনের পারিবারিক ইতিহাস ও শারীরিক বা অন্য কোন মানসিক সমস্যা জানা থাকলে ডাক্তারের কাছে প্রতিবেদন করতে পারি।সাবধানতার সঙ্গে কথা বলা ও তার কথা মনোযোগ দিয়ে শোনা। যদি সম্ভব হয় তাকে নিয়ে কোথাও থেকে ঘুরে আসা যায়।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও