প্রিয় গ্রাহক, আপনার মনের কথাগুলো শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। আমি অনুভব করতে পারছি আপনার খারাপ লাগার জায়গাগুলো। আসলে এটা খুবই স্বাভাবিক যখন একপক্ষ চেষ্টা করে যাচ্ছে কিন্তু অপর পক্ষ থেকে কোন ধরনের এপ্রিসিয়েশন পাওয়া যায় না তখন বেশ খারাপ লাগে। তবে গ্রাহক,একটা বিষয় কি সবাই কিন্তু একই রকম নয় হতে পারে আপনার হাজবেন্ডের পারসোনালিটি এরকম টাইপের।সে হয়তো খুব একটা এক্সপ্রেসিভ নয়।আপনি তাকে যেভাবে এক্সপেক্ট করেন সে হয়তো সেরকম নয়। আবার হতে পারে সে কোন কিছু নিয়ে অনেকে মানসিক টানাপোড়েনে বা সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে যা হয়তো সে আপনার সাথে শেয়ার করতে পারছে না। আপনি তার জায়গায় বসিয়েও বিষয়গুলো একটু ভাবতে পারেন। সবচেয়ে ভালো হয় আপনি তার সাথে খোলা মেলা কথা বলুন, তার কাছে জানতে চান সে কোন সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে কিনা? আপনি হেল্প করতে না পারলেও সে যেন অনন্ত আপনার সাথে শেয়ার করে।এতে করে আপনার ও ভালো লাগবে,তার ও মন কিছুটা হালকা হবে। তাকে বলুন যে আপনি তাকে প্রচন্ড ভালোবাসেন, তার কেয়ার করেন, আপনি ও চান যে সে যেন অনন্ত আপনাকে একটু সময় দেয়, আপনার কেয়ার করে, আপনার খোজ খবর নেয়।আর কথা বলার সময় "I language "ব্যবহার করতে পারেন। আমরা যখন কাউকে কথা বলার সময় blame দিয়ে কথা বলি যে তুমি এটা করলে না কেন,তুমি আমার খোঁজ নিলে না কেন,তোমার কি করা উচিত ছিলো না,তুমি আমাকে বোঝ না? এভাবে বললে তখন স্বাভাবিক ভাবেই আমরা যতই নরম গলায় ধীরে এই কথা গুলো বলি না কেন অপর পক্ষের মানুষটি এটা সহজে নিতে পারে না।তখনই বেশি ঝগড়া ও মনোমালিন্য হয়।বরং একই জিনিস গুলো যদি এভাবে বলেন যে আমি যেরকম তোমাকে বুঝি,তোমার কেয়ার করি,সেরকম আমিও আশা করি তুমি আমাকে একটু বুঝবে বা কেয়ার করবে। অর্থাৎ চেষ্টা করবেন নিজের অনুভুতির দিকে ফোকাস করতে।এতে যেমন সেও কষ্ট পাবে না তেমনি আপনার জীবনে সে যে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ও মূল্যবান সেটা সে নিজেও অনুভব করতে পারবে।ভুল বোঝাবুঝি হলে দু'পক্ষের খোলামেলা আলোচনা ও কথা বার্তায় সেটা অনেকটাই দূর হয়ে যায়। আশা করি আপনি চেষ্টা করে দেখবেন। ধন্যবাদ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও