প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনি যে আপনার পড়াশোনা নিয়ে সচেতন তা জেনে ভালো লাগলো।  পড়াশোনা এমন একটা জিনিস যেটা নিয়মিত ও রুটিন মাফিক করাটা উওম।তবে এর মানে যে আপনাকে সারা দিন ধরে পড়তে হবে এমনটা নয়। সময় ও সুবিধামত একেক সময় হয়তো একেকটা জিনিস সম্পর্কে পড়তে কিংবা জানতে পারেন।  বই পুস্তক নিয়ে পড়তে একঘেয়েমি চলে আসলে সেক্ষেত্রে পড়ার বিষয়গুলো মোবাইলে ইন্টারনেট ঘেঁটে জানতে পারেন। দৈনিক পড়তে বসার অভ্যাস করতে পারেন। এক্ষেএে কিছু টিপ্স ফলো করতে পারেন- * সকাল বেলা অথবা যে সময়টাতে শরীর,ও মন ফ্রেশ থাকে সে সময়,আমাদের ব্রেইন বেশ এক্টিভ থাকে,ঐ সময়টাতে কঠিন কোনকিছু নিয়ে পড়তে পারেন।এতে করে পড়াটা বেশ আত্নস্থ হয়। *প্রতিদিনের পড়া জমিয়ে না রেখে প্রতিদিন শেষ করা,অন্ততএকবার হলেও চোখ বুলাতে পারেন। *কুইজ বা কোডিং করে পড়া। *যখন বই ভিওিক কিছু পড়তে মন চাবে না তখন ইন্টারনেটে ঘেঁটে সে বিষয় সম্পর্কে ধারণা নিতে পারে। * প্রতিদিনের রুটিনে বিনোদন মূলক কিছু টপিক রাখা। * দিনের একটা সময় নিজেকে একটু অবসর করা,মনকে প্রশান্তি দিতে পারে। মেডিটেশন করতে পারেন।  * আনন্দ ও বাস্তবসম্মত উদাহরণ দিয়ে পড়ার চেষ্টা করা।*প্রতি রাতে অনন্ত সারাদিন যা ই পড়া হয়েছে তা রিভিশন করা। এতে করে পড়া গুলো ঝালাই হয়।পরবর্তীতে প্রেসার কম পড়ে। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে জানাবেন।রয়েছে পাশে সবসম। মায়া আপা।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও