প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।  আপনি পুরুষ না মহিলা?প্রেসার কত থাকে ? উচ্চরক্তচাপ ,কিডনি জটিলতা আছে ? আপনার কোন রোগ আছে কি, যেমন- ডায়াবেটিস বা অন্য কিছু? আপনি কি নিয়মিত কোন ঔষধ সেবন করেন? আপনি নারী হয়ে থাকলে আপনার মাসিক কি নিয়মিত হয়? আমাদের বিস্তারিত জানাবেন।অনেক মানুষেরই হাত পা জ্বালা পোড়া বা গরম অনুভূত হয় । বিশেষ করে রাতে বিছানায় গেলে সমস্যা বেশি দেখা যায়, এই রোগটি ৩৫-৪০ উর্ধে লোক বিশেষ করে মহিলাদের বেশি হয়ে থাকে আবার গর্ভাবস্থায়ও অনেকের -পা জ্বালা পোড়ার সমস্যা দেখা দেয়। তবে গরমকালে অনেকেরই জ্বালা পোড়ার প্রবণতাটি অনেকাংশে বেড়ে যায়।জ্বালাপোড়া বাড়লে গোসল করে ফেলবেন। প্রচুর পানি খাবেন। শাকসবজি বেশি করে খাবেন।দুশ্চিন্তা ও মানসিক চাপ কমান। প্রয়োজনে চিকিৎসা নিন। নিউরোপ্যাথি আছে প্রমাণিত হলে স্নায়ুর যন্ত্রণা লাঘব করে এমন কিছু ওষুধ পাওয়া যায়। চিকিৎসকের পরামর্শে সেগুলো সেবন করতে পারেন। সাধারণত যারা পানি কম পান করেন তাদের উচিত বেশি পরিমাণে পানি পান করা এবং মিনারেল জাতীয় খাবার বেশি পরিমাণে খাওয়া। এতে করে হাত-পা ও শরীর জ্বালা-পোড়া অনেক অংশে কমে যাবে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী কিছু পরীক্ষা করবেন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও