প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। স্ট্রোক দুই ভাগে ভাগ করা যায়, আঞ্চলিকভাবে রক্ত হটাত থেকে যাওয়া অথবা মস্তিষ্কে রুক্তক্ষরন। তবে দুই অবস্থাতেই প্রায় একই ধরনের উপসর্গ দেখা যায়। স্ট্রোক হলে সাধারণত যেসব লক্ষণ বা উপসর্গসমূহ দেখা যায় সেগুলো হল, মাথা ঝিমঝিম করা, প্রচণ্ড মাথা ব্যথার সাথে ঘাড়, মুখ এবং দুই চোখের মাঝখান পর্যন্ত ব্যথা হওয়া, হাঁটতে কিংবা চলাফেরা করতে এবং শরীরের ভারসাম্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে সমস্যা হওয়া, কথাবার্তা জড়িয়ে যাওয়া এবং অস্পষ্ট শোনানো, শরীরের একপাশে দূর্বল, অসাড় কিংবা প্যারালাইজড হয়ে যাওয়া, চোখে অস্পষ্ট দেখা, অন্ধকার দেখা কিংবা ডাবল ডাবল দেখা, বমি বমি ভাব কিংবা বমি হওয়া ইত্যাদি। এটা অনেক সময় ঘুমের মধ্যে হতে পারে, বাথরুম গেলে কিংবা কোন কাজ করার সময় অথবা হটাত রেগে গেলে এমন হতে পারে।স্ট্রোক যেকোন মানুষের হতে পারে, তবে কিছু কিছু অসুখ থাকলে স্ট্রোক হওয়ার স্বম্ভাবনা বেশি থাকে। যেমন হায় প্রেসার, রক্তে অতিরিক্ত চর্বি, ডায়াবেটিস, হার্ট এর সমস্যা।স্ট্রোক এর লক্ষন দেখা দিলে দেরি না করে যতদ্রুত স্বম্ভব হাসপাতালে নিতে হবে। সেখানে চিকিতসক লক্ষন দেখে পরীক্ষা নিরীক্ষার মাধ্যমে পরবর্তী চিকিৎসা দিবেন। স্ট্রোক হওয়ার পর নিয়মিত ওষুধ খেতে হবে, বিভিন্ন সমস্যার জন্য অনেক সময় থেরাপী দিতে বলা হয়, সেটা নিয়মিত করতে হবে। প্রেসার এবং ব্লাড গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রনে রাখতে হবে।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও