আপনার বয়স কত ? কতদিন ধরে আপনার এই সমস্যা হয়েছে ? গলা ব্যথা  ছাড়া অন্য কোনো সমস্যা কি হচ্ছে?আপনার কি অন্য কোন সমস্যা আছে, যেমন জ্বর, কাশি, শ্বাসকষ্ট , সর্দি ইত্যাদি? আপনার পরিবারের অন্য আর কারো এই ধরনের সমস্যা হচ্ছে ? আমাদের জানান।আপনি কি ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাস দ্বারা সংক্রমিত  কারো সংস্পর্শে এসেছেন? আমাদের জানান। যদি আপনি কোন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সংষ্পর্শে এসে থাকেন,তবে   IEDCR এর হেল্প লাইন ১৬২৬৩ অথবা ৩৩৩ যোগাযোগ করবেন।যদি আপনি কোন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির  সংস্পর্শে না এসে থাকেন, সে ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম কানুন মেনে চলুন, পরিবারের সকল সদস্য থেকে আপাতত দূরত্ব বজায় রাখুন, অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করুন, হাঁচি বা কাশি আসলে যে টিস্যু পেপার ব্যবহার করবেন, সেটি অবশ্যই ঢাকনাযুক্ত ডাস্টবিনে ফেলুন, এবং হাত ব্যবহার করবেন না। দরকার হলে হাতের কনুই ব্যবহার করুন।হাত ভালো করে সাবান দিয়ে পরিষ্কার করুন, অন্তত ২০সেকেন্ড হাত ধুবেন এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। প্রচুর পানি পান করুন এবং কুসুম গরম পানিতে লবন মিশিয়ে গার্গল করুন।সাথে আদা চা,লেবু চা খান।ঠান্ডা কোন খাবার খাবেন না।তরল খাবার সাথে ভিটামিন সি যুক্ত খাবার যেমন কমলা,লেবু,আমলকি,জাম্বুরা,বড়ই,কাচা মরিচ,সবুজ শাক সবজি খান।পাশাপাসি অবশ্যই মাছ,মাংশ,ডিম,দুধ ,কলা,সবুজ শাক সবজি খাবেন,এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে।গরম স্যুপ খেতে পারেন।মাছ , মাংস , ডিম ভালোভাবে সিদ্ধ করে খেতে হবে। জিঙ্ক  যে কোন ভাইরাসের কার্যক্ষমতা  কমায়। আমাদের শরীরে যথেষ্ট পরিমাণ  জিঙ্ক জমা থাকে। তারপরও স্টোরেজ আরো একটু বাড়াতে  জিঙ্ক বেশি আছে এমন খাবার যেমনঃ মাংস, শিম জাতীয় খাবার, বিচি জাতীয় খাবার জিরা-কালো জিরা, ডিম দুধ, খোসা সহ খাদ্য শস্য একটু বেশি খাওয়া ভাল।বাইরে যাবেন না।মাস্ক ব্যবহার করুন।জ্বর ১০০ এর বেশি হলে প্যারাসিটামল জাতীয় ওসুধ খাবেন।কাশি থাকলে এন্টিহিস্টামিন জাতীয় ওসুধ খেতে পারেন।হাত ধুবেন সাবান দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে।সাথে অবশ্যই পরিবারের সদস্য দের থেকে দূরে থাকবেন।সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখবেন।আপনার ব্যবহৃত সকল কাপড় ভালো ভাবে সাবান দিয়ে ধুয়ে রোদে শুকাবেন।তবে আলাদা একটি ঘরে থাকা খুবই জরুরি।এরসাথে সাথে আপনি কিছু নিয়ম মেনে চলুন - গার্গল বা কুলকুচি: এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে আধা চা-চামচ লবণ মিশিয়ে কুলকুচি করতে হবে। এক সপ্তাহ প্রতিদিন তিন বেলা করে কুলকুচি করবেন। এতে কফ, কাশি এবং গলাব্যথা সবই খুব দ্রুত কমে যাবে। এটি খুবই কার্যকর একটি পদ্ধতি।মধু: এক কাপ লেবুমিশ্রিত চায়ের মধ্যে এক চা-চামচ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। মধু কাশি কমাতে সাহায্য করে এবং গলাব্যথা কমায়।এ ছাড়া আদা চা, গরম পানি খাওয়া, গলায় ঠান্ডা না লাগানো নিয়মিত মেনে চললে গলা ব্যথা  দ্রুত ভালো হয়ে যায়।আপনার গলা ব্যথা  না কমলে বা সাথে অন্য সমস্যা দেখা দিলে দ্রুত একজন চিকিৎসক এর পরামর্শ নিন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও