প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক আপনার সম্পর্কে কিছু জানতে পারি? আপনি ছেলে না মেয়ে ? আপনার বয়স কত? গ্রাহক ,জন্ম বিরতিকরন হিসেবে কনডম সবচেয়ে ভালো, কারণ এটি সম্পুর্ন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াবিহীন। অন্যদিকে পিল যেহেতু হরমোনাল ওষুধ, যে কোন ওষুধেরই পার্শপ্রতিক্রিয়া থাকে।যেসকল পার্শপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে সেগুলো হল, স্তন নরম অনুভূত হওয়া, মাথা ব্যথা,খিটখিটে মেজাজ, যৌন মিলনের প্রতি আগ্রহ বাড়তে বা কমতে পারে,শরীরে পানি জমে যাওয়া, বমি বমি ভাব এবং রক্তচাপে পরিবর্তন। যাদের মাইগ্রেন আছে তারা লক্ষ্য করতে পারেন মাইগ্রেন বেড়েছে অথবা কারো কারো ক্ষেত্রে কমেছে। কন্ডম পুরুষের জন্য একপ্রকার অস্হায়ী জন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি ।এটি ব্যবহারে শুক্রাণু জরায়ুতে প্রবেশ করতে পারে না। ফলে গর্ভধারণের সম্ভাবনা থাকে না। সঠিকভাবে ব্যবহার করলে এটি শতকরা ৯৭ ভাগ কার্যকর।কন্ডম শুধুমাত্র অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভধারণ থেকেই সুরক্ষা দেয়না ,এর সাথে সাথে যৌন সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ করার সবচেয়ে ভালো উপায় হল কনডম ব্যবহার করা। এটি ল্যাটেক্স রাবার অথবা প্লাস্টিক ( পলিইউরিন) দিয়ে তৈরি জন্মনিয়ন্ত্রক।এটি গর্ভনিরোধক পদ্ধতির মধ্যে সবচেয়ে সহজ কেননা শুধুমাত্র সহবাসের সময় এটি পরিধান করলেই হয়। এটি সহজলভ্য এবং দামেও সাশ্রয়ী । প্রতিবার সহবাসের সময় ১টি নতুন কনডম ব্যবহার করতে হয়। ৫ বছরের বেশি পুরোনো বা মেয়াদউত্তীর্ণ কনডম ব্যবহার করা উচিত নয়।কনডম ব্যবহারের কিছু উপকারিতা হলোঃ ১. অনেক দম্পতি মনে করেন যে, কনডম ব্যবহার করে যৌনমিলন করলে যৌন আনন্দের পরিমাণ কমে যায়। কিন্তু এটি সম্পূর্ণ ভূল। কনডম ব্যবহার করে যৌনমিলন করলে যৌন আনন্দের পরিমাণ বেড়ে যায়। ২. কনডম অপরিকল্পিত গর্ভধারণ রোধ করে। ৩. কনডম ব্যবহার করে যৌনমিলন করলে এইডস,গনোরিয়া, সিফিলিস ইত্যদি যৌনরোগ থেকে নিরাপদে থাকা যায়। ৪. অনেক পুরুষই হয়তো জানেন না যে, কনডম ব্যবহার করে অনেকক্ষণ যৌনমিলন করা যায়, যা কনডমবীহিন অবস্থায় পুরোপুরিভাবে সম্ভব নয়। ৫. বিভিন্ন ব্রান্ডের কনডমে নরমাল এবং বিভিন্ন ফ্লেভারের লুব্রিকেন্ট দেওয়া থাকে, যার ফলে আলাদাভাবে লুব্রিকেন্ট ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। খুবই প্রয়োজন হলে গ্লিসারিন ব্যবহার করতে পারেন,তেল ব্যবহার করবেন না। কারণ তেল ল্যাটেক্সকে ভেঙ্গে দেয়, ফলে কনডমের কার্যকারিতা নষ্ট হয়। ৬. পৃথিবীর প্রায় ৫% নারীর পুরুষের বীর্যের এলার্জী রয়েছে। যদি আপনার নারী পার্টনারের বীর্যের এলার্জী থাকে সেক্ষেত্রে ৬-৭ মাস কনডম ব্যবহার করে এই এলার্জী নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। তবে যেসকল দম্পতির কনডম ব্যবহারে এলার্জী রয়েছে তাদের কনডম ব্যবহার না করাই ভালো। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও