প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।ধূমপান করলে রক্তে নিকোটিনের পরিমাণ অনেক বৃদ্ধি পায়। একইসঙ্গে ফুসফুসে জমতে থাকে। ধূমপানে অভ্যস্তরা নিজের ফুসফুস পরিষ্কার করতে পারেন নানা উপায়ে। তবে ধূমপান ছাড়তে পারলে তার থেকে ভাল আর অন্য কিছু হতে পারে না।যদি কোনোভাবেই ধূমপানের নেশা ছাড়তে না পারেন, তাহলে ফুসফুসকে রক্ষার জন্য কয়েকটি উপায় জেনে নিন।# যোগ ব্যায়াম অভ্যাস করুন: প্রাণ ভরে শ্বাস-প্রশ্বাস নিলে শরীর থেকে টক্সিন বেরতে সাহায্য করে। যোগ ব্যায়াম অভ্যাস করলে ফুসফুসকে পরিষ্কার রাখা সম্ভব হয়।# পুদিনা-তুলসী পাতার ব্যবহার: নানা ধরনের ফুসফুসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে পুদিনা-তুলসী এমনকি বাসক পাতার রস খেতে পারেন।# আপনার ডায়েট চার্টে এমন খাবার রাখুন যাতে অনেক বেশি করে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস ও ভিটামিন সি রয়েছে। এক্ষেত্রে আনারস বা নানা ধরনের বেরি, পেয়ারা ইত্যাদি ফল দারুন কাজ দেবে।# আদার রস: গলা খুসখুস বা সর্দি-কাশিতে যেমন দারুণ কাজ দেয় আদা, তেমনই ফুসফুসের ময়লা পরিষ্কার করতেও এর জুড়ি নেই। একটুকরো আদা মুখে পুরে নিন। এতে দারুন কাজ দেবে।# গাজরের রস: গাজরের রস শুধু ফুসফুস নয়, শরীরের নানা দূষিত পদার্থকেও বাইরে বের করে দেয়। প্রতিদিন অল্প করে গাজরের রস খেলে শরীর অনেক চাঙা থাকে।# লেবুর রস: শরীর সুস্থ রাখতে লেবুর রসের কোনো জুড়ি নেই। প্রতিদিন একগ্লাস লেবুর শরবত ফুসফুসের সঙ্গে সারা শরীরকে সুস্থ রাখে।# গ্রিন টি: নিয়মিত গ্রিন টি খেলে ফুসফুস সুস্থ থাকতে দারুন সাহায্য করে।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া আপা ।

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও