প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।আপনার কথা থেকে বুঝতে পারছি আপনি আপনার আম্মুকে নিয়ে অনেক সচেতন। আসলে মানসিক সমস্যার ঔষধ গুলো অনেক দিন ই খেতে হয়। আসতে ঔষধ এর ডোজ কমতে থাকতে। তাই আপনাদের সব সময় ডাক্তার এর সাথে যোগাযোগ রাখতে হবে। যে ডাক্তার ঔষধ দিয়েছেন তার সাথে নির্দিষ্ট সময় পর পর দেখা করা। তাহলে উনি পরিস্থিতি বুঝে ডোজ কমিয়ে বা পরির্বতন করে দিবেন।আর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া তেমন নেই তবে গলা শুকিয়ে যেতে পারে তাই মাঝে মাঝে পানি পান করা এবং ঘুম বেশি হতে পারে।তবে ডাক্তার এর পরার্মশ ছাড়া ঔষধ ছাড়া মানসিক রোগীদের জন্য ঠিক নয়। এতে রোগ আরো বেড়ে যেতে পারে। ঔষধ এর পাশাপাশি কাউন্সেলিং সেবা নিতে পারেন আপনার আম্মু তাহলে স্বাভাবিক জীবনে দ্রুত আসতে পারবেন বলে আশা করছি।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও