ধন্যবাদ নানা কারণে পেট ফুলে যেতে পারে। পেটে মেদ জমা, পেটের ভেতর পানি জমে থাকা; বায়ু কিংবা মল জমে থাকার কারণেও পেট ফোলা মনে হয়। খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন ও ব্যায়ামের মাধ্যমে মেদ কমিয়ে ফেলা সম্ভব। খাওয়ার পর অনেকের পেট ফুলে ফেঁপে যায়। গ্যাস জমা হলে ভয়ের কিছু নেই। তবে কোনো কারণে অন্ত্রনালি আটকে গেলে হঠাৎ পেট ফুলে যাওয়ার পাশাপাশি কোষ্ঠকাঠিন্য, পেটে তীব্র ব্যথা ও বমি হয়ে থাকে। এমন হলে জরুরি চিকিৎসা নিতে হবে।পেটে পানি জমা হলে ধীরে ধীরে পেট ফুলে যেতে থাকে। পানি জমার জন্য মূল যে রোগটি দায়ী, সেটিও ধীরে ধীরে জটিলতার দিকে অগ্রসর হয়। পেটে পানি জমলে পেট ফুলে যাওয়ার পাশাপাশি আরও কিছু লক্ষণ দেখা যায় সন্ধ্যায় বা রাতে হালকা জ্বর আসা এবং পরে ঘাম দিয়ে জ্বর ছাড়া, শরীরের ওজন কমে যাওয়া বা বেড়ে যাওয়া, জন্ডিস, অর্থাৎ চোখ বা প্রস্রাব হলুদ হয়ে যাওয়া, পেটে কোনো চাকা বা গোটা অনুভব করা, ক্ষুধামান্দ্য, শ্বাসকষ্ট এবং পা ফুলে যাওয়া, দুর্বলতা, অবসন্ন ভাব, মাথা ঘোরা, ত্বক ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া, যকৃৎ, হৃদ্যন্ত্র, কিডনি, পেটের অভ্যন্তরের কোনো অঙ্গে সমস্যা হলে পেটে পানি আসে। পেটে পানি জমা ভালো লক্ষণ নয়। তাই এমনটা সন্দেহ হলে অবশ্যই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও