গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। অ্যামিবা (এক কোষী পরজীবি বা পেরাসাইট) এবং সিগেলা-shigella এক ধরনের ব্যাক্টেরিয়া দ্বারা মানবদেহের পরিপাকতন্ত্রে (গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল) বাসা বেঁধে যে ইনফেকশনে পেটে কামড়ানো সহ মলের সাথে পিচ্ছিল আম অথবা শ্লেষ্মা যুক্ত রক্ত যাওয়া কে আমাশয় বা ডিসেন্ট্রি বলা হয়। যদি আপনার বারবার পায়খানা হয়, পায়খানার সঙ্গে যদি রক্ত বা মিউকাস যায়, তখন আমরা একে বলি আমাশয়। আমাশয় প্রধানত দুই ধরনেরঃ ১। এমিবিক ডিসেনট্রি ২। আরেকটি হলো বেসিলারি ডিসেনট্রি। এমিবিক আমাশয় থেকে বেসিলারি আমাশয় জোড়ালোভাবে হয়। এতে মলের সাথে আম এবং প্রচুর পরিমাণ রক্ত যাবে। পেটে ব্যথা থাকবে, পায়খানা হবে। আবার অনেক সময় পেটে ব্যথায়ই হবে তবে পায়খানা হবে না। অনেক সময় দেখা যাবে রোগীর সিস্টেমিক অন্যান্য রোগের অভিযোগগুলো চলে আসে। যদি বারবার মল ত্যাগ করেন, বারবার শরীর থেকে পানীয় বেরিয়ে যায়, তাহলে ফ্লুইড দিতে হবে, এটা হচ্ছে এক নম্বর। আর দুই নম্বর হলো, পায়খানাকে কালচার সেনসিটিভিটি করে যেভাবে রিপোর্ট আসে, ওইভাবে তার অ্যান্টিবায়োটিক শুরু করতে হবে। সঠিক মাত্রা , সঠিক ডোজ, সঠিক সময় মেনে অ্যান্টিবায়োটিক খেতে হবে। অন্যথায় অ্যান্টিবায়োটিকের বিরূপ প্রতিক্রিয়া, রেজিসটেন্স সৃষ্টি হবে। আমিষ জাতীয় খাবার একটু কম খাবেন। নিজের যত্ন নিবেন । পরিষ্কার পরিছন্ন থাকবেন । যদি অধিক রক্ত ক্ষরণের প্রবণতা দেখা যায় সেক্ষেত্রে ডক্টর এর পরামর্শ নিয়ে এন্টিবাইওটিক এর প্রয়োজন আছে । আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়াকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও