প্রিয় গ্রাহকআপনার বিষয়টি আমার সাথে শেয়ার করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার কথা থেকে বুঝতে পারছি যে আপনার ধৈর্য ধারন করতে সমস্যা হচ্ছেএটা খুব ভালো বিষয় যে আপনি নিজের অনুভুতির প্রতি সচেতনকবে থেকে এটা অনুভব করছেন কোন ঘটনার পর থেকে এমনটা হচ্ছে কি? ঐ মুহূর্তে আপনার কি চিন্তা অনুভূতি হয় বিস্তারিত বলা যায় কি? গ্রাহক জীবনের উঁচু নিচু পথ পাড়ি দিতে গিয়ে আমরা ধৈর্য হারিয়ে ফেলি। প্রত্যেক সফল মানুষের জীবনের একটি অংশ জুড়ে রয়েছে ব্যর্থতা। কিন্তু তাদের সফলতার রহস্য হলো, প্রবল ধৈর্যের সাথে ইচ্ছা শক্তি।যেকোনো ঘটনা বিস্তারিত লিখতে ধৈর্যের প্রয়োজন। তাই নিয়মিত ডায়েরি লেখার অভ্যাস করতে পারেনধৈর্যশক্তি বাড়ানোর অন্যতম উপায় হচ্ছে বই পড়া। তাই ধৈর্যশক্তি বাড়ানোর অন্যতম উপায় হচ্ছে বই পড়া। বই পড়া মানসিক চাপ কমায়। মনকে ধীর স্থির করে তোলে। মেডিটেশন বা ধ্যান ধৈর্য বাড়ানোর একটি অন্যান্য কার্যকরি উপায়। যেকোনো মানসিক চাপ থেকে মুক্তি লাভের উপায় হলো মেডিটেশনদৈনন্দিন কাজের ফাঁকে নিজেকেও সময় দিন মন ভালো হয় এমন কাজ গুলো করুনবাস্তববাদী চিন্তা ও লক্ষ্য নির্ধারণ করার চেষ্টা করুনইতিবাচক চিন্তা করার চেষ্টা করুনআশা করি উপকৃত হয়েছেনপাশে রয়েছেমায়া

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও