গ্রাহক,আপনার মনের কথা জানিয়ে প্রশ্ন করার জন্য ধন্যবাদ এবং দুঃখিত দেরিতে উত্তর দেওয়ার জন্য।আপনার স্বামী প্রপার সময় দেয় না, কেয়ার করে না যার জন্য আপনার কষ্ট হয়, তাই কি?আপনার এর জন্য যে অনুভূতি হচ্ছে তা স্বাভাবিক। দাম্পত্য জীবনে একে অন্যের কথা শুনবে, জানবে এবং সময় দিবে এটা প্রত্যাশিত চাওয়া। আপনি জানিয়েছেন যে, স্বামীকে বুঝানোর চেষ্টা করেন তিনি যেন আপনার কষ্ট বুঝে। যা ইতিবাচক দিক। আমার সাথে শেয়ার করা যাবে, আপনি কিভাবে/ কি রকম পদক্ষেপ নিয়ে থাকেন বুঝানোর জন্য বা নিজের কথা প্রকাশের জন্য? জানতে চাইছি কারণ প্রকাশের মাধ্যমটা অনেক জরুরি। আপনি যদি উনার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে ভালোবেসে একান্ত মুহূর্তে নিজের মনের কথা জানান এবং আপনি কি চাইছেন তার থেকে এটা ব্যক্ত করেন তাহলে উনি আপনার মনের চাওয়া বুঝতে চেষ্টা করতে পারেন। সে সাথে জেনে নিতে পারেন কি কারণে কম সময় দিচ্ছি, কোথায় নিয়ে যাচ্ছে না ইত্যাদি।আপনাদের আলোচনা এবং শেয়ারিং খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ  এ ইস্যু সমাধানের জন্য। সে সাথে জানাতে পারেন যে সন্তানের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ কোথাও যাওয়া এবং সুস্থ পরিবেশের। কারণ এর উপর নির্ভর করে সন্তানের মেধা বিকাশের।আশা করি সহযোগিতা করতে পেরেছি, ধন্যবাদ আপনাকে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও