প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। গ্রাহক,  গর্ভকালীন সময়ে হরমোনের পরিবর্তনের জন্য শরীরে নানা ধরনের পরিবর্তন আসে যার মধ্যে বমি , বমি ভাব, মাথা ঘুরানো, খাবারে অরুচি , গন্ধ লাগা অন্যতম। আপনি এজন্য কিছু নিয়ম মেনে চলতে পারেন ।১।সকালে ঘুম থেকে উঠেই বিছানা থেকে না উঠে শোয়া অবস্থায় একটু হাত পা নাড়াচাড়া করা, মানে হাল্কা ব্যায়াম করা।২।রাতেই দাঁত ব্রাশ করে ঘুমানো, সকালে উঠে শুধু কুলি করে মুখ ধোয়া । কারন অনেক সময় সকালে ব্রাশ করতে যেয়ে টুথপেস্টের গন্ধে অনেকেই বমি করেন অথবা বমি বমি ভাব হয়।৩। সকালে শুকনো খাবার খেতে পারেন যেমন - বিস্কুট ,টোস্ট , মুড়ি। তার ১-২ ঘন্টা পর সকালের নাস্তা করবেন।৪।খাবার আগে ও খেতে বসে অতিরিক্ত পানি খাবেন না।৫।সবসময় বাসায় তৈরি খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। যদি চাকুরীজীবি হন , তবে বাসা থেকে খাবার নিয়ে যেতে হবে।৬।অতিরিক্ত তৈলাক্ত , ভাজাপোড়া , মশলাদার খাবার পরিহার করুন। এ ধরনের খাবার এসিডিটি করে বমির উদ্রেক করে।৭।একবারে বেশি পরিমান খাবার না খেয়ে ২-২.৫ ঘন্টা পরপর অল্প অল্প করে খাবার খাবেন । এতে করে আপনার আগের খাবারও হজম হয়ে যাবে আর এই খাবারে আপনার পেটও ভরবে।৮।খালিপেটে টক জাতীয় ফলগুলো খাবেন না , এতে এসিডিটি হয়ে বমি, বমি ভাব হতে পারে। তাই খাবারের পর বা মধ্যে টকফল খেতে পারেন।৯। বাইরের খাবার , বাসি খাবার পরিহার করবেন।১০।অতিরিক্ত গন্ধ যুক্ত খাবার , এনার্জি ড্রিঙ্কস এগুলো খাবার থেকে বিরত থাকবেন।১১। রাতের খাবারের অন্তত ১-২ ঘন্টা পরে ঘুমাতে যাবেন।তবে বমি মাত্রাতিরিক্ত হলে অবশ্যই গাইনিকোলজিস্টের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ সেবন করতে হতে পারে।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।রয়েছে পাশে সবসময়মায়া    

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও