প্রিয় গ্রাহক,শুভ সকাল ও ঈদ মোবারক। আপনার মনের অনুভুতি গুলো শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। আপনি বলেছেন আপনি হতাশায় আছেন। কিন্তু কি নিয়ে হতাশায় আছেন তা কি শেয়ার করা যায়? যখন আমরা মনের মতন কিছু না পাই বা কোন কাজে ব্যর্থ হই তখন মানসিক অবসাদের সৃষ্টি। যার ফলে আমরা হতাশ হয়ে যাই। হতাশা একটি মানবিক অনুভূতি যার মাত্রাতিরিক্ত উপস্থিতি কখনও মানসিক বিপর্যয় সৃষ্টি করে। হতাশ হলে ব্যক্তির মধ্যে কিছু শারীরিক ও মানুষিক  সমস্যা দেখা দিতে পারে যেমনঃ ব্যক্তি মনমরা হয়ে থাকে, কোনো বিষয়ে আনন্দ খুঁজে পায় না, মনোযোগের অভাব ঘটে, ঘুমের সমস্যা হতে পারে, খাওয়ার সমস্যা হতে পারে, আবেগের তারতম্য হতে পারে, অনেক সময় দুর্বল লাগে, মাথা ঘোরে, পেটের সমস্যা, কাজের গতি কমে যাওয়া, অন্যমনষ্ক থাকা, নিজেকে অন্যদের কাছ থেকে গুটিয়ে নেওয়া, এমন কি সুইসাইডাল ইচ্ছাও আসতে পারে।                                                                                                                                                                                         হতাশার অনেক কারন ই থাকতে পারে তবে মেইন কারন হলো নেতিবাচক চিন্তা ভাবনা করা এবং নিজের মাঝে আশা ও আত্ন-বিশ্বাসের অভাব বোধ।তাই হতাশা থেকে বের হতে হলে নিজের চিন্তা ভাবনাকে পজিটিভ করা এবং আত্ন-বিশ্বাস বাড়ানোর চেষ্টা করা।এ ছাড়া হতাশা কাটাতে আরো যা করতে পারেন :                                                                                                                                                কোপিং কার্ড ব্যবহার করতে পারেন। একটি কার্ডের মধ্যে ইতিবাচক কথা লিখে সামনে রাখতে পারেন। যেমন : এই অবস্থা থেকে অবশ্যই আমার মুক্তি হবে। এই বিষয় গুলো দিনে বারবার দেখার চেষ্টা করা।                                                                                                                                                নিজের ভালো দিকগুলোর একটি তালিকা তৈরি করে ফেলুন। সেই জিনিসগুলোর প্রতি আলোকপাত করুন। এগুলো দেখলে আত্মবিশ্বাস আসতে পারে। আর যেটা এখনো নেই, যার জন্য হতাশ বোধ করছেন সেটা করার চেষ্টা করুন।                                                                                                                                                 জীবনে কিছু শব্দ মাথায় আনা থেকে দূরে থাকুন যেমনঃ must, should.                                                                                                                                                  নিজেকে একা করে না ফেলে সমাজের মানুষের সাথে মিশতে হবে। আশা করি কিছু টা সাহায্য করতে পেরেছি। এর কোন প্রশ্ন থাকলে মায়াকে জানাবেন। আপনার প্রয়োজনে রয়েছে পাশে সব সময় মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও