প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনাকে অনেক অভিনন্দন আপনি মা হতে চলেছেন। গর্ভাবস্থায় বিভিন্ন কারনে পা ফুলতে পারেঃ১। প্রথম ১২ সপ্তাহ প্রোজেস্টেরন হরমোনের জন্য শরীরের পানি জমা শুরু হতে পারে।২। অতিরিক্ত গরমের কারনে।৩। পানি কম পান করলে।৪। বেশি সময় হাঁটাহাঁটি বা দাঁড়িয়ে থাকলে।৫। পেট বড় হবার কারনে শরীরের নিচের অংশে চাপ পরে এবং এ কারনে এ অংশে প্রেসার পরার কারনে।যা করা উচিতঃ১। আরামদায়ক জুতা পরতে হবে।২। প্রতিদিন কমপক্ষে ৮-১০ গ্লাস পানি পান করতে হবে।৩। কমপক্ষে ৮ ঘন্টা রাতে ঘুমাতে হবে।৪। পরিমিত পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে।অনেক সময় পা ফুলার সাথে সাথে হাত ও মুখও ফুলে যেতে পারে তখন দেরী না করে ডাক্তার দেখানো উচিৎ। পাশাপাশি ব্লাড প্রেসার ও প্রস্রাব পরীক্ষা করা জরুরী।গর্ভাবস্থায় pre-eclampsia ও eclampsia এর মত মারাত্মক সমস্যার সাইন হলো পা ফুলে যাওয়া। তাই নিয়মিত ব্লাড প্রেসার পরীক্ষা করিয়ে নেয়া দরকার।প্রেগনেন্সিতে যে সকল উপসর্গ দেখলে দেরী না করে হাসপাতালে ভর্তি হবেন, তা হলোঃ১। জ্বর আসলে।২। খিঁচুনি বা অজ্ঞান হয়ে গেলে।৩। যোনিপথে রক্তপাত হলে।৪।মাথা-ব্যাথা, চোখে ঝাপসা দেখলে।৫। খুব বেশি পেট ব্যাথা হলে।৬। শ্বাস-কষ্ট হলে। আপনার ও আপনার অনাগত সন্তানের জন্য আমাদের শুভ কামনা রইলো।ভালো থাকবেন।পাশে আছি সবসময়, মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও