প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনার ভালবাসার মানুষটা আপনার সাথে চিট করায় আপনার খারাপ লাগার পরিমানটা আমি অনুভব করতে পারছি। একটা সময় ধরে কোন একজন মানুষ পাশাপাশি থাকার পর হঠাৎ করে তার চলে যাওয়ায় সৃষ্ট হওয়া শূন্যতা একজনকে কষ্ট দিবে এটাই স্বাভাবিক।ভালবাসা এমন একটি দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক যেখানে দুই পক্ষেরই সমান দায়িত্ব থাকে। আপনার ভালবাসার মানুষকে আপনি অনেক ট্রাস্ট করতেন এবং নিজের দায়িত্ব গুলোও ঠিক ঠাক ভাবে পালন করার চেষ্টা করতেন। অন্য একজনের দায়িত্বে অবহেলা করার জন্য নিজেকে কষ্ট দেয়াটা কতটুকু যুক্তিযুক্ত ভেবে দেখবেন কি? গ্রাহক, আমাকে অনুগ্রহ করে বলবেন কি আপনাদের রিলেশনশিপটা কত দিনের ছিল? একটু ভেবে দেখেন তো রিলেশনশিপের প্রথম কয়েকদিন আপনার সম্পর্কটা কেমন ছিল? আর এখন সময়ের সাথে সাথে সেটা আরো দৃঢ় হয়েছিল তাই নয় কি? সুতরাং সময় এমন একটি ফ্যাক্টর যেটি আমাদের অনুভূতিকে শক্তিশালী বা দূর্বল করতে পারে। যেহেতু, আপনাদের ব্রেক আপ হয়েছে এবং আপনি তাকে ভালবেসেছেন সুতরাং আপনি তাকে মিস করবেন, তার জীবনের বিভিন্ন পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন এ বিষয়গুলো স্বাভাবিক। আপনাকে এই পরিবর্তনের সাথে মানিয়ে নেয়ার জন্য সময় দিতে হবে। সময় এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা আপনার খারাপ লাগার অনুভূতিকে কমিয়ে দিবে। একটু ভেবে দেখবেন কি আপনার ২ বছর আগে কোন একটা বিষয় নিয়ে যে পরিমাণ খারাপ লাগত এখন সমপরিমাণ খারাপ লাগে না কারণ সময়ের সাথে সাথে বিষয়টির প্রতি খারাপ লাগা আপনার আর নেই।পাশাপাশি সম্পর্কের এই অবস্থানটাকেও মেনে নিতে হবে। আমি তাকে ভুলতে চাই, কিভাবে ভুলব, বার বার এসব চিন্তা করে আপনি কিন্তু তার কথাই মনে করছেন। বিষয়টাকে ভোলার চেষ্টা না করে স্বাভাবিক একটা বিষয় হিসেবে নিলে বরং আপনি দ্রুত এখান থেকে বের হয়ে আসতে পারবেন।  এই সম্পর্কটির বাইরে আপনার আরো অনেক সম্পর্ক আছে আরো অনেক দায়িত্ব আছে যেমন- আপনি কারো সন্তান, কারো বন্ধু, কারো পারিবারিক আত্মীয় একটি সম্পর্কের কারণে বাকি সম্পর্ক গুলোকে বা দায়িত্ব গুলোকে ইগ্নোর না করে সেগুলো ঠিকঠাক ভাবে পালন করার চেষ্টা করা যেতে পারে। মনের এ অবস্থায় মনটা বেশ খারাপ থাকলেও নিজের ভাল লাগে এমন কাজে নিজেকে নিয়োজিতে রাখার চেষ্টা করুন। এবং দৈনন্দিন কাজগুলো থেকে সরে না গিয়ে সেগুলো ছোট ছোট ভাগে ভাগ করে করার চেষ্টা করুন। নিজেকে সময় দিন। যদি এমন কেও থাকে যে আপনার মনের কথাগুলো শুনবে এবং গোপনীয়তা বজায় রাখবে তার সাথে শেয়ার করুন। আশা করি আপনাকে একটু হলেও সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া কে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া।

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও