গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। সাধারণত যৌনাঙ্গ এর রঙ শরীরের অন্যান্য জায়গার থেকে গাড়ও বর্ণের হয়, যা স্বাভাবিক। তবে অনেক সময় জন্মদাগ বা কোন ফঙ্গাস এর সংক্রমণ হলে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশী কালো বর্ণ হয়ে থাকে তবে সেই ক্ষেত্রে চুলকানি, চামড়া উঠা এইসব উপসর্গ থাকবে।তারপর ও আপনার কোন সন্দেহ থাকলে আপনি একজন স্কিন স্পেশালিষ্ট কে দেখিয়ে নিতে পারেন। বগলের রং আমাদের গায়ের রঙের উপর নির্ভর করে গাঢ় রঙের হতে পারে,এটি স্বাভাবিক। আন্ডারআর্ম বা বগলের কালো দাগের জন্য অনেকে নানান ক্রিম ব্যবহার করে থাকেন,যা এই দাগ সাময়িক ভাবে হয়তো দূর করে ।কিন্তু ,সেটা আবার ফিরে আসে।এরজন্য কিছু জিনিস করুন,যেগুলো কেবল আপনার বগলের কালো দাগ দূর করবেই না বরং দাগ সরিয়ে সবসময় বগলকে সুন্দর রাখবে ,যেমন :- ১) বগলের কালো দাগ দূর করার জন্য শসা বা আলুর রস খুবই দারুণ একটি জিনিস। দিনে দুবার বগলে শসা বা আলুর রস লাগিয়ে রাখুন। ১৫/২০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। রসের বদলে থেঁতো করা আলু বা শসাও ব্যবহার করতে পারেন।

২) বেকিং সোডার সাথে পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্ট বগলে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে বেশ কয়েকবার এটা করুন। কালো দাগ তো দূর হবেই, নতুন দাগ হবে না।

৩) ২ টেবিল চামচ কাঁচা দুধ, ১ টেবিল চামচ দই, ১ টেবিল চামচ ময়দা মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্ট বগলে মাখুন।সপ্তাহে ২/৩ বার নিয়মিত ব্যবহারে কালো দাগ দূর হবে আবার বগলে নতুন করে দাগও হবে না।

৪) বগলে শেভ না কয়ে ওয়াক্স করুন। খুব ভালো হয় যদি পার্লারে করতে পারেন। সেখানে যত্ন করে করা হয় আর ত্বকের কোন ক্ষতি হয় না। শেভ করলে চুলের গোঁড়াটা রয়ে যায় ফলে কালো দাগ বেশী মনে হয়।

৫) যদি শেভ করতেই হয়, তাহলে নারিকেল তেল ব্যবহার করুন বগলে শেভিং ক্রিমের বদলে। এছাড়াও প্রতিদিন বগলে নারিকেল তেল ম্যাসাজ করুন। নারিকেল তেল নিয়মিত ম্যাসাজে বগলের কালো দাগ দূর হয়ে তো যাবেই, ত্বকও থাকবে ফর্সা ও সুন্দর।

৬) কেবল মুখে নয়, বগলেও স্ক্রাবিং করুন।

৭) বগলে ক্ষতিকারক ঘাম প্রতিরোধক পণ্য ব্যবহার না করে প্রাকৃতিক উপায়েই ঘাম প্রতিরোধ করুন।
৮) এমন পোশাক পরুন, যাতে বগলে খুব বেশী ঘষা না লাগে।

৯) গোসলের সময় প্রতিদিনি বগল আলাদা ভাবে পরিষ্কার করুন।

১০) বগলে পারফিউম লাগাবেন না। কিংবা বগলের কাছের পোশাকেও নয়।

আপনার বগলে যদি চুলকানি বা এমন কোন সমস্যা হয়ে রং কালো হয়ে যায় তবে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও