প্রিয় গ্রাহকআপনার বিষয়টি আমার সাথে শেয়ার করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।প্রিয় গ্রাহকআপনার বিষয়টি আমার সাথে শেয়ার করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার কথা থেকে বুঝতে পারছি যে আপনি মনে রাখতে পারছেন না, গ্রাহক কতদিন যাবত এই সমস্যা অনুভব করছেন? জিবনে গুরুত্ব পূর্ণ কি কিছু ঘটেছে যার পর থেকে এমন হচ্ছে?শরীর ও মন একে অন্যের সাথে জড়িত তাই দুই দিক থেকেই সুস্থ থাকা প্রয়োজনমস্তিস্ককে সজাগ রাখুন এজন্যে বই, সংবাদপত্র ইত্যাদি পরতে পারেনকিছু সময় ব্যায়াম / শরীর চর্চা করুন, ডাইরি লেখার অভ্যাস করতে পারেন, স্মৃতি শক্তি ভালো রাখতে পর্যাপ্ত ঘুম, পুষ্টিকর স্বাস্থ্য সম্মত খাবার খাওয়া প্রয়োজন, মানসিক ভাবে সুস্থ থাকার চেষ্টা করুন, কাছের মানুষদের সাথে সময় কাটান এবং মনে চাপ থাকলে সেটা শেয়ার করুনঅনেক সময় অধিক মানসিক চাপ দুশ্চিন্তা ইত্যাদি থেকে মন ও মস্তিষ্কের উপর চাপ পরতে পারে, এ থেকে মনে না থাকার বিষয়টি হতে পারেআপনি কি কোন বিসয়ে চিন্তিত?আশা করি বিস্তারিত জানাবেনমানসিক চাপ, দুশ্চিন্তা কমানোর জন্য নিজের ভালো লাগার বিষয়গুলো একটি খাতায় টুকে রাখতে পারেন দুশ্চিন্তা আসলে সেগুলো দেখলে ভালো লাগবে নিজকে ক্রিয়েটিভ কাজের মধ্যে ব্যাস্ত রাখা, আপনার মন ভালো হয় এমন কাজ গুলো করামেডিটেশন, যোগব্যায়াম করা এতে মানসিক প্রশান্তি আসবে মস্তিস্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। নিজের প্রিয় আপন মানুষ, বন্ধুদের সাথে মনের কথা গুলো শেয়ার করা। প্রাণ খুলে হাসার চেষ্টা করা, বন্ধুদের সাথে সময় কাটানো, গান শোনা, বাইরে থেকে ঘুরে আসা প্রভৃতির মাধ্যমে মন রিলাক্স হবে, দুশ্চিন্তা কিছুটা হলেও কমবে।আশা করি আপনাকে কিছুটা হলেও সাহায্য করতে পেরেছিআর কিছু জানার থাকলে মায়াকে বলবেন,আপনার পাশে রয়েছে,মায়া আশা করি আপনাকে কিছুটা হলেও সাহায্য করতে পেরেছিআর কিছু জানার থাকলে মায়াকে বলবেন,আপনার পাশে রয়েছে,মায়া

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও