গ্রাহক, মাসিক বন্ধ থাকলে গর্ভধারনের সম্ভাবনা থাকলে অবশ্যই প্রেগন্যান্সি টেস্ট করে দেখতে হবে। যদি সেটি না হয় তাহলে মাসিক অনিয়মিতের কারনগুলো দেখতে হবে। মাসিক অনেক কারন যেমন-স্ত্রী রোগ,মাসিক শুরুর প্রথম কয়েক বছর,থাইরয়েডের সমস্যা,হঠাত ওজন কমায় হতে পারে। প্রায় অনিয়ম হলে বা দীর্ঘদিন বন্ধ থাকলে গাইনী ডাক্তার দেখিয়ে চিকিৎসা নিতে হবে।

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও