প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া শপ

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


প্রিয় গ্রাহক
আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ


প্রকৃত কারণে উৎকন্ঠিত হওয়াটা কোন অস্বাভাবিকতা নয় বা এটি কোন রোগ ও নয়।
উৎকন্ঠা (Anxiety) বা এংজাইটি দু’রকমভাবে হতে পারে, প্রথমত- উৎকন্ঠিত হবার
মতো যথার্থ কোন কারন কোন আসন্ন বিপদ বা ক্ষতিগ্রস্ত হবার সম্ভাবনা) না থাকা
 সত্ত্বেও যদি কেউ মনগড়া কারণে অযথা ভীতিগ্রস্থ হয়ে পড়েন।


মনোবিজ্ঞানের পরিভাষায় উৎকন্ঠা বা এংজাইটি প্রধানত তিন প্রকার-
১. জেনারেলাইজড এংজাইটি ডিসর্ডার – যেক্ষেত্রে আক্রান্ত ব্যক্তি প্রায় সবসময় সবকিছু নিয়ে উৎকন্ঠিত হন।

 ২. ফোবিক এংজাইটি ডিসর্ডার – কোন বিশেষ বস্তু, প্রানী, পরিবেশ, পরিস্থিতির
 সম্মুখীন হলে উৎকন্ঠায় আক্রান্ত হওয়া। যেমন অনেক লোকের ভীড়ে গেলে
উৎকন্ঠিত হওয়া (Agoraphobia) , তাই ভীড়ের জায়গা এড়িয়ে চলেন তারা। এ
ক্ষেত্রে আক্রান্ত ব্যক্তি ঐ বস্তু বা পরিস্থিতির সম্মুখীন না হলে উৎকন্ঠিত
 হন না।
৩. প্যানিক ডিসর্ডার – কোন বস্তু বা পরিস্থিতির সম্মুখীন না
হয়েও মাঝে মাঝে নিজের কল্পনা প্রসুত কারনে উৎকন্ঠিত হওয়া, যেমন রাতে
শুয়ে আছে, হঠাৎ আজ রাতে যদি আমার হার্ট এটাক হয় এটা ভেবেই নির্ঘুম রাত
কাটিয়ে দিলেন। এক্ষেত্রে উৎকন্ঠিত হবার মত নূন্যতম কোন বাস্তু বা ঘটনাই
উপস্থিত নেই।

আশা করি আপনাকে কিছুটা হলেও সাহায্য করতে পেরেছি

আর কিছু জানার থাকলে মায়াকে বলবেন,

আপনার পাশে রয়েছে,

মায়া

পরিচয় গোপন রেখে ফ্রিতে শারীরিক, মানসিক এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন Maya অ্যাপ থেকে। অ্যাপের ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://bit.ly/38Mq0qn


প্রশ্ন করুন আপনিও