প্রিয় গ্রাহক, প্রশ্ন করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। গ্রাহক, আপনার স্ত্রীর কি সবসময় মাসিক অনিয়মিত হত? নাকি এই বারই প্রথম মাসিক দেরি করে হচ্ছে? এর মধ্যে কি কোন ইমারজেন্সি জন্মনিয়ন্ত্রন বড়ি সেবন করেছেন? আমাদের জানাবেন।এছাড়া অনেক কারণেই আপনার পিরিয়ড প্রভাবিত হতে পারে, জীবন - যাত্রার ধারা পাল্টানো যেমন-হঠাত ওজন অনেক কমে যাওয়া,অধিক ব্যায়াম ও অধিক দুঃশ্চিন্তা,থাইরয়েডের সমস্যা, contraceptive বন্ধ করা অথবা ইমারজেন্সি জন্মনিয়ন্ত্র বড়ি সেবন করলে এবং চিকিৎসা বা স্ত্রী-রোগ বিষয়ক অবস্হা থাকলে। গ্রাহক, সাধারণত যদি মাসিক নিয়মিত থাকে ২৮ দিনের সাইকেল হয় তাহলে মাসিক শুরু হবার তারিখ থেকে ১০- ১৮ নং তারিখ পর্যন্ত আনসেফ পিরিয়ড থাকে। এই সময় অরক্ষিত সহবাস করলে গর্ভধারণের সম্ভাবনা থাকে। আবার অনেক সময় কনডম ব্যবহার করলে যদি কনডম এ ফোটা থাকে বাঁ কনডম ছিরে যায় তাহলে ও গর্ভ ধারন হতে পারে।যেহেতু আপনার মাসিক এর তারিখ পার হয়ে গিয়েছে সেই ক্ষেত্রে আপনি গর্ভধারন করেছেন কিনা তা দেখার জন্য ঘরে বসে প্রেগ্নেন্সি কীট ব্যবহার করে সকালের প্রস্রাবে দিয়ে পরীক্ষা করে দেখতে পারেন। যদি ২ দাগ আসে তার মানে হল আপনি গর্ভ ধারন করেছেন। সাধারনত মাসিকের তারিখ পার হবার ৬-১২ দিনের মধ্যে প্রেগ্নেন্সি কীট এ রেজাল্ট ধরা পরে। অথবা আপনি নিশ্চিত হতে রক্তে বীটা এইছ সি জি পরীক্ষা করতে পারেন। সাধারণত মাসিকের তারিখ পার হবার ১ দিন পরই অথবা অরক্ষিত সহবাসের ৩ সপ্তাহ এর মধ্যে রক্তে বীটা এইছ সি জি এর পরিমান অনেক বেশি বেড়ে যায় যদি গর্ভধারন করা হয়।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে মায়া কে জানাবেন। পাশে আছে সবসময় মায়া।দ্রুত প্রশ্নের উত্তর পেতে, এবং ঔষধের পরামর্শ নিতে মায়া প্রেসক্রিপশন প্যাকেজে doc3 promo code লিখে সাবস্ক্রাইব করে ৫০% ছাড়ে একজন এক্সপার্টের সাথে কথা বলতে পারবেন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও