প্রশ্ন সমূহ
আর্টিকেল
মায়া ফার্মেসী

মায়া প্রশ্নের বিস্তারিত


আপনাকে শুরুতেই অভিনন্দন, কারণ আপনি ধূমপান ছাড়তে চাইছেন। এইক্ষেত্রে ইচ্ছাশক্তি অনেক বড় একটি ভুমিকা পালন করে। শুরুতে আপনি কেন ধূমপান ছাড়তে চাইছেন, সেটা নিয়ে একটু ভাবুন। এরপর সপ্তাহে ১ দিন ঠিক করুন যে ওইদিন একেবারেই ধূমপান করবেন না, এমনকি পাশে বন্ধুরা ধূমপান করে ধোয়া ছাড়ছেন, সেটাও শুঁকে দেখবেন না। দুই সপ্তাহ যদি একদিন করে সম্পূর্ণ ধূমপান ছাড়া থাকতে পারেন, নিজেকে বাহবা দিন। যেদিন আপনার ধূমপান বিরতি দিবস সেদিন আগে থেকে সবাইকে বলে রাখতে পারেন আপনাকে সাহায্য করতে। যে বন্ধুরা ধূমপান করেন, উনাদের বলুন উনারা যেন আপনাকে সিগারেট অফার না করেন। দেখবেন, ধূমপান এড়ানো কিছুটা সহজ হয়ে এসেছে। দুই সপ্তাহ পর দিনটা বাড়িয়ে দুই দিন করুন। পরপর তিন সপ্তাহ, সপ্তাহে দুই দিন করে ধূমপান থেকে বিরত থাকবেন। ধূমপান করতে ইচ্ছে হলে কি করবেন? চুইংগাম চাবান, ব্যায়াম করে ঘাম ঝরান। ঘামের সাথে শরীরে জমে থাকা নিকোটিন বের হয়ে আসবে। একটা ছোট প্লাস্টিকের ব্যাঙ্ক কিনুন। ধূমপান না করে খুচরা টাকাগুলো জমান। সপ্তাহ শেষে নিজেকে পুরস্কার দিন। এটা যেকন কিছুই হতে পারে। হয়তো আপনি ছবি আঁকেন, কোন রঙ শেষ হয়ে গিয়েছে, কেনা হয়ে ওঠেনি, সেরকম কিছুও নিজেকে দিতে পারেন, কিংবা অনেক দিন ধরেই চাচ্ছিলেন কিনতে কিন্তু পারেননি, সেরকম কিছুও হতে পারে। আবার মাকে কিংবা বাবাকে এই অল্প টাকা দিয়েই ছোট-খাটো কিছু কিনে দিতে পারেন। এভাবে সময়টা ধীরে ধীরে বাড়াতে থাকুন। নিজেকে সময় দিন। সপ্তাহে তিনদিন করে বন্ধ রাখলে সেটা টানা চার সপ্তাহ ধরে করবেন। আপনাকে অনেক ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করতে হবে। ইচ্ছাশক্তি বজায় রাখতে হবে। আপনাকে এসময় সাহায্য করতে পারে এরকম মানুষজনের সাথে কথা বলুন। পরিচিত বন্ধু কিংবা বড়ভাইদের মধ্যে যদি কেউ থাকেন যে ধূমপান ছেড়ে দিয়েছেন, উনাদের সাথে আলাপ করুন, মনে সাহস আসবে। অনেক বন্ধু আবার এটার জন্য আপনাকে খোঁচা মারতে পারেন। রেগে না গিয়ে, প্রভাবিত না হয়ে নিজের ধূমপান ছাড়ার কারণটা নিয়ে ভাবুন। এর মধ্যে অনেকবারই আপনার ইচ্ছে হবে ধূমপান করতে, হয়তো করেও ফেলবেন। নিজেকে ঘৃণা না করে, রেগে না গিয়ে আবার শুরু করুন, দেখবেন আপনি পারছেন।ধূমপান করতে ইচ্ছে হলে কি করবেন? চুইংগাম চাবান, ব্যায়াম করে ঘাম ঝরান। ঘামের সাথে শরীরে জমে থাকা নিকোটিন বের হয়ে আসবে। একটা ছোট প্লাস্টিকের ব্যাঙ্ক কিনুন। ধূমপান না করে খুচরা টাকাগুলো জমান। সপ্তাহ শেষে নিজেকে পুরস্কার দিন। এটা যেকন কিছুই হতে পারে। হয়তো আপনি ছবি আঁকেন, কোন রঙ শেষ হয়ে গিয়েছে, কেনা হয়ে ওঠেনি, সেরকম কিছুও নিজেকে দিতে পারেন, কিংবা অনেক দিন ধরেই চাচ্ছিলেন কিনতে কিন্তু পারেননি, সেরকম কিছুও হতে পারে।



প্রশ্ন করুন আপনিও