আমি সবসময় চিন্তা করি।কারনে অকারনে সবসময়।আমি কাজ করি একটা, মনোযোগ থাকে অন্য জায়গায়।আমি চেষ্টা করলেও আমার মনকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি।সবসময় কোন না কোন চিন্তা আমাকে জোড় করে আটকে রাখে।যার জন্য আমি সব কাজেরমধ্যে আমি সঙ্কিত থাকি।এর ফলেআমার জীবন থেকে অনেক কিছু হারিয়েছি ও হারাতে যাচ্ছি।সুচিপায়িতার জন্য সব জায়গায় নিজকে খাপ খাওয়তে পারি না,যা আমার স্বাভাবিক জীবনকে বাধাগ্রস্হ করছে।অনেক চিকিৎসা করিয়েছি সাইক্রিয়াটিস্ট দেখিয়েছি। কিন্তু কোন লাভ হয় নাই। আমার জীবন থেকে সফলতা গুলো হারিয়ে গেছে। আমি সবসময় একটা ঘোরের মধ্যে থাকি।যা থেকে চাইলেও বের পারি না। আমার মনের উপর কোনো কন্ট্রোল নেই। অতিরিক্ত টেনশনের জন্য আমার পড়াশোনায় অনেক ক্ষতি হচ্ছে। যার জন্য আমি সবসময় রেজাল্ট খারাপ করছি। আমি এটাকে মেনে নিতে পারছিনা। উত্তেজিত হলে, ভুলভাল চিন্তাভাবনা ও ভুলভাল কাজ করতে থাকি। আমার অবস্থা খুবই সংকোচন জনক।আমি সুস্থ হয়ে ভালোভাবে পড়াশোনা করি খুব বড় হতে চাই। প্লিজ আমাকে সাহায্য করুন

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আমি অনুভব করতে পারছি বিভিন্ন চিন্তা আপনাকে মানসিকভাবে অনেক কষ্ট দিচ্ছে। আপনার চিন্তার ধরন কিরকম? আপনি সাধারণত কোন কোন ক্ষেত্রে চিন্তায় পরে যান এবং তখন আপনার মাঝে কি অনুভূতি কাজ করে? চিন্তা আশা টা ভাল। কোন বিষয় নিয়ে চিন্তা করলে আপনি সেই বিষয়টি সম্পর্কে আরও গভীর ভাবে জানতে পারবেন। কিন্তু অতিরিক্ত চিন্তার ফলে যদি আপনার দৈনন্দিন কাজে ব্যাঘাত ঘটে তবে তা আপনার জন্য ক্ষতিকর।  সাধারণত মানুষ যখন কোন negative চিন্তা করে তখন সে চিন্তিত হয়ে পরে যার থেকে কোন উপকার পাওয়া যায় না। negative চিন্তার বদলে Positive চিন্তা করতে পারেন তাহলে মানসিক চাপ অনেকটা কমে যাবে এবং নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পাবে। কোন বিষয় নিয়ে যদি অতিরিক্ত চিন্তা আসে তবে মনটাকে Divert করার জন্য আপনার অন্য কোন পছন্দের কাজ নিয়ে নিজেকে ব্যস্ত রাখতে পারেন। অতিরিক্ত চিন্তার সময় নিজেকে relax রাখার জন্য relaxation বা deep breathing করতে পারেন। মেডিটেশন বা Relaxation হল এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে শরীরকে শিথিল করা যায়। মানসিক ভাবে প্রাশান্তি লাভ করা যায়। দুচিন্তা, আবেগ, হতাশা থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া যায়। এর মাধ্যমে দীর্ঘ নিঃশ্বাস নেওয়ার ফলে মস্তিস্কে বিশুদ্ধ অক্সিজেন প্রবেশ করে মস্তিস্ককে অনেক শিথিল করে যার ফলে পরবর্তীতে আর ও ভাল ভাবে সমস্যা নিয়ে চিন্তা করা যায়। নিম্নের ভিডিও লিঙ্ক টি দেখলে আপনি মেডিটেশন বা relaxation সম্পর্কে আরও ভাল করে জানতে পারবেন। https://www.youtube.com/watch?v=Y_s_iwgvTpA আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়াকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও