টেকনিক্যাল সমস্যার জন্য উত্তর দিতে দেরি হওয়ায় দুঃক্ষিত। পরিবার এর আর কারও আছে কি?শরিরের অন্য কোন অংশে আছে কি?জানাবেন।আপাতত জায়গিটি কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে শুষ্ক ও পরিষ্কার রাখুন।ব্যথা হলে নাপা ট্যাবলেট খান খাবার পর।না দেখে আপনার এই রোগের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব নয়।তাই আপনি একজন স্কিন ডাক্তার এর পরামর্শ নিন। ।আপনি কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে পারেন।১. চুলকানির স্থান প্রতিদিন পরিষ্কার করতে হবে। কোন অবস্থাতেই অপরিষ্কার থাকা যাবে না। গোসলের সময় জীবাণুনাশক সাবান দিয়ে আক্রান্ত স্থান ভালভাবে ধুয়ে ফেলুন, এবং অবশ্যই লক্ষ্য রাখুন সাবানটি যেন আপনার পরিবারের অন্য কোন সদস্য ব্যবহার না করে। নাহলে তারাও এতে আক্রান্ত হবে।২. প্রতিদিন পরিষ্কার অন্তর্বাস ব্যবহার করুন। এ ক্ষেত্রে পরামর্শ হচ্ছে সপ্তাহের ৭ দিনের জন্য ৭টি অন্তর্বাস কিনে নিন। প্রতিদিন নতুন অন্তর্বাস পরুন। সম্ভব না হলে একদিন ব্যবহারের পরেই অন্তর্বাস ধুয়ে পরিষ্কার করে রাখুন।৩. চুলকাবেন না। যত বেশি চুলকাবেন ততই তা শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়বে। এছাড়া এটি আপনার অভ্যাসে পরিণত হয়ে যাবে, ফলে জনসমক্ষে বিব্রতকর অবস্থায় পরতে হবে।৪. আক্রান্ত স্থান যথা সম্ভব শুষ্ক রাখার চেষ্টা করুন৫. সুতির অন্তর্বাস পরিধান করুন৬.ডাক্তার এর পরামর্শ নিয়ে প্রতিদিন আক্রান্ত স্থানে সঠিক ক্রিম ব্যবহার করুন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও