প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনার মন খারাপের অনুভূতি গুলো আমি বুঝতে পারছি। আপনার অল্পতেই মন খারাপ হয়ে যায়। আপনি কি শনাক্ত করতে পেরেছেন যে কোন বিষয়গুলোতে আপনার মন খারাপ বেশি হয়। যদি শনাক্ত করে থাকেন তাহলে অনুগ্রহ করে জানাবেন কি? গ্রাহক, প্রেগন্যান্সির সাথে মন খারাপের সম্পর্ক আছে। এই সময় আমাদের শারীরিক বিভিন্ন পরিবর্তন হয়। প্রেগন্যান্ট হওয়ার আগেও কি আপনার একই রকম অনুভূতি হত? আমাদের যখন মন খারাপ থাকে তখন আমরা সব কিছু থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নেই। আপনার ক্ষেত্রেও কি এমন কিছু ঘটছে? সব কিছু থেকে নিজেকে গুটিয়ে না নিয়ে নিজের ভাল লাগার কাজগুলোতে নিজেকে নিয়োজিত রাখুন। যে কাজগুলো আপনাকে আনন্দ দেয় সে কাজগুলো করার চেষ্টা করুন। আপনার আশে পাশে থাকা মানুষগুলোর মধ্যে যারা আপনার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনবে এবং গোপনীয়তা বজায় রাখবে তাদের সাথে আপনার কথা গুলো শেয়ার করুন, এতে করে আপনার হালকা অনুভব হবে। মাথায় যে নেতিবাচক চিন্তা গুলো আসে সেগুলোর পরিবর্তে পজিটিভ চিন্তা করার চেষ্টা করুন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। সমস্যা সম্পর্কিত বিস্তারিত জানালে আপনাকে আরো সুনির্দিষ্ট ভাবে সাহায্য করতে পারব বলে মনে করছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া কে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও