আবেগীয় স্বাস্থ্য

“আত্মহত্যাজনিত কিছু ভূল ধারণা এবং এর সঠিক ব্যাখ্যা”

“আত্মহত্যাজনিত কিছু ভূল ধারণা এবং এর সঠিক ব্যাখ্যা”  

গত ১০ই অক্টোবর ছিল বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস। এবারে মূল বিষয় “আত্মহত্যা প্রতিরোধ”। মায়াতে আমরা এই বিষয়ক সেবা প্রদান করে থাকি। বাংলাদেশে প্রতি বছর ১১০০০ মানুষ আত্মহত্যা করে মারা যায়। চলুন আমরা আজকে জেনে নেই আত্মহত্যা নিয়ে যে ভুল ধারণা প্রচলিত আছে।    

১. কেউ একবার আত্মহত্যা  করার চেষ্টা করলে তার সবসময়ই আত্মহত্যার চিন্তা থাকবে। 

সঠিক ব্যাখ্যা: আত্মহত্যার ঝুঁকি প্রায়শই স্বল্পমেয়াদী এবং যা কোন নির্দিষ্ট পরিস্থিতিতেই থাকে। আত্মহত্যার চিন্তা ফিরে আসতে পারে কিন্তু সেটা স্থায়ী হয় না এবং আত্মহত্যার চিন্তা আছে এমন মানুষ ও অনেক দিন বেঁচে থাকতে পারে।  

২.আত্মহত্যা সম্পর্কে কথা বলা ঠিক না এবং সেটা উৎসাহ প্রদান করতে পারে। 

সঠিক ব্যাখ্যা: আমাদের সমাজে আত্মহত্যা নিয়ে অনেক ভ্রান্ত ধারণা আছে, তাই যারা আত্মহত্যা করবে বলে চিন্তা করে সেটা কার কাছে বলবে তা বুঝতে পারে না। কথা বললে তার চিন্তাটা কে উৎসাহিত করা হবেনা বরং যে সমস্যাটার সম্মুখীন হচ্ছে সেটার সমাধান পেতে পারে, ভিন্ন ভাবে চিন্তা করতে পারে।

৩. শুধুমাত্র যারা মানসিক রোগী তারাই আত্মহত্যা করে।   

সঠিক ব্যাখ্যাঃ  মানসিক অশান্তি থেকে আত্মহত্যা করতে পারে। এর মানে এই নয় যে, যারা মানসিক রোগে আক্রান্ত শুধু তারাই  আত্মহত্যা করে। এমন অনেকেই আছে যাদের মানসিক অসুস্থতা আছে কিন্তু আত্মহত্যার চিন্তা করে না। 

৪. বেশিরভাগ আত্মহত্যা হঠাৎই হয় কোন ধরণের পূর্বাভাস ছাড়াই। 

সঠিক ব্যাখ্যাঃ

অনেকক্ষেত্রেই দেখা যায়, আত্মহত্যাকারী বিভিন্ন ভাবে পূর্বাভাস দেয়, সেটা হতে পারে মৌখিক বা আচরণ-গত, যেমন- চিঠি লিখে, কথা বলে ইত্যাদি । তবে হ্যাঁ, কিছু ক্ষেত্রে এর ভিন্নতা হতে পারে।  এটা খুবই গুরুত্বপুর্ন যে, কি ধরণের পূর্বাভাস দিচ্ছে এবং সেটা খুঁজে বের করা।  

৫. যাদের আত্মহত্যার প্রবণতা আছে তারা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ থাকে মৃত্যুর জন্য। 

সঠিক ব্যাখ্যাঃ পক্ষান্তরে আত্মহত্যার প্রবণতা যাদের আছে তারা দোটানায় ভুগে বেঁচে থাকা এবং মরে যাওয়া নিয়ে। কেউ হয়তো উত্তেজনার বসে মরে যাওয়ার জন্য আত্মহননের,তবে তারা বাঁচতে চেয়েছিলো। মানসিক ভাবে সহায়তা করলে আত্মহত্যা প্রতিরোধ করা যেতে পারে। 

৬. যারা আত্মহত্যার কথা বলে তারা মজা করার জন্য বলে। 

সঠিক ব্যাখ্যাঃ যারা আত্মহত্যার কথা বলে, তারা হয়তো সাহায্য পাওয়ার জন্য বলে থাকে। আত্মহত্যা কারীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মানুষের উদ্বেগ, বিষন্নতা এবং আশাহীনতার অভিজ্ঞতা থাকে। এবং তারা আর কোন উপায় খুঁজে পায় না। 

আমরা প্রচলিত ভুল ধারনা গুলো জানলাম। আপনার অথবা আপনার আসে পাশে কারও যদি মানসিক সহায়তার দরকার হয় তবে আর দেরিনা করে এখনি মায়াতে  প্রশ্ন করুন। 

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment