রক্তচাপ হৃদরোগ সংক্রান্ত

আপনার রক্তচাপ কি স্বাভাবিক?

Written by Maya Expert Team

বাংলাদেশের পূর্ণ বয়স্ক মানুষের তিন ভাগের এক ভাগ জীবনে কখনো রক্তচাপ মাপেন না।

উচ্চ রক্তচাপ খুব সাধারণ একটি বিষয় এবং অনেক সময়ই এর কোন উপসর্গ দেখা যায় না।

আপনার রক্তচাপ পরীক্ষা করুন

আপনার উচ্চ রক্তচাপ আছে কিনা তা জানার একমাত্র উপায় হচ্ছে রক্তচাপ মাপা। নার্স,

ফার্মাসিস্ট এবং ডাক্তারেরা সাধারন পরীক্ষার মাধ্যমে আপনার রক্তচাপ মেপে দিতে পারেন।

উচ্চ রক্তচাপ থাকলে আপনার হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়, তবে রক্তচাপ

কমানোর জন্য আপনি কয়েকটি কাজ করতে পারেন।

নিচের নির্দেশনাগুলো মেনে চলে একটি স্বাস্থ্যসম্মত জীবন যাপন শুরু করলে রক্তচাপ কমিয়ে

স্বাভাবিক পর্যায়ে রাখা সহজ হবে।

ব্যায়াম

সপ্তাহে পাঁচ দিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট করে হাঁটা, সাইকেল চালানো, সাঁতার বা নাচার মত কোন ব্যায়াম

করুন। ব্যায়াম করার অভ্যেস না থাকলে তাড়াহুড়ো করে শুরু করবেন না। কতটুকু ব্যায়াম করা আপনার

জন্য ভাল হবে সে ব্যাপারে ডাক্তারের সঙ্গে আলোচনা করুন, এবং আস্তে আস্তে অভ্যেস গড়ে

তুলুন।

স্বাস্থ্যকর খাওয়া

একটি স্বাস্থ্যকর, ভারসাম্যপূর্ণ খাদ্যাভ্যাস আপনার রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করবে।

স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসে যা থাকে-

● লবণ কম থাকবে

● সংপৃক্ত চর্বিযুক্ত (saturated fat) খাবার কম থাকবে

● প্রতিদিন পাঁচটি ভাগে ফলমূল ও শাকসবজি থাকবে (five portions of fruit and

vegetables a day )

একদিনে ৬ গ্রামের বেশি লবণ না খাওয়ার চেষ্টা করুন। ৬ গ্রাম লবণ হচ্ছে প্রায় এক চা-চামচের

সমান। স্বাস্থ্যসম্মত খাবার কেনার জন্য প্যাকেটের গায়ে লেখা এর উপাদাগুলো সম্বন্ধে পড়ে

কেনার চেষ্টা করুন। অনেক ধরনের রুটি এবং স্যুপেও লবণ দেয়া থাকে।

মাখন, ঘি, চর্বিযুক্ত মাংস, সসেজ, কেক, বিস্কিট, এবং নারিকেল তেল দিয়ে রান্না করা খাবারে

সংপৃক্ত চর্বি থাকে। অনেকে সংপৃক্ত চর্বি থাকে জেনে মাখন খাওয়া এড়িয়ে চলেন, কিন্তু সকালের

কফির সাথে তিনটি বিস্কিট খেলেও আপনার সংপৃক্ত চর্বিযুক্ত খাবার খাওয়া হয়।

ফলমূল ও শাকসবজি স্বাস্থ্যের জন্য ভাল। এগুলো তাজা, টিনজাত, হিমায়িত, শুকনো বা জুস আকারে

খেতে পারেন।

ওজন কমান

ব্যায়াম এবং স্বাস্থ্যসম্মত খাওয়া আপনার ওজন কমাতে সহায়তা করবে। অতিরিক্ত ওজন আপনার

উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়, তাই সঠিক ওজন বজায় রাখাটা জরুরি।

আপনার ওজন ঠিক আছে কিনা তা জানতে এবং ওজন কমানোর বিষয়ে বিভিন্ন পরামর্শের জন্য

“BMI healthy weight calculator”– এই লিঙ্কটি ব্যবহার করুন।

মদ্যপানের পরিমাণ নিয়ন্ত্রন করুন

আপনার জন্য মদ্যপানের নির্দেশিত মাত্রা হচ্ছেঃ

● ছেলেদের ক্ষেত্রে দিনে তিন থেকে চার ইউনিট

● মেয়েদের ক্ষেত্রে দিনে দুই থেকে তিন ইউনিট

এক ইউনিট মদ হচ্ছে ১২৫ মি.লি. ওয়াইন বা সাধারন বিয়ারের (regular-strength lager) অর্ধেক

পাইট।

নিয়মিত নির্দেশিত মাত্রার চাইতে বেশি মদ্য্যপান করলে আপনার উচ্চ রক্তচাপের মত স্বাস্থ্য

সমস্যার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

ধূমপান

যদিও ধূমপানের কারনে রক্তচাপ বাড়ে না, তবে এর কারনে হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়। ধূমপান ত্যাগ

করলে এই ঝুঁকি কমে যায় এবং আপনার উচ্চ রক্তচাপ থাকলে এটি মনে রাখা ভীষণ জরুরি।

ওষুধ

কোন কোন ব্যাক্তির রক্তচাপ কমানোর জন্য ওষুধ খেতে হতে পারে, এবং জীবন যাপনের ধরন

বদলাতে হতে পারে।

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment