প্রোডাক্ট রিভিউ মনোসামাজিক সৌন্দর্য চর্চা

চুলে রং করব, না কী করব নাঃ চুল রং করা নিয়ে কিছু তথ্য

চুলে রং করব, না কী করব নাঃ চুল রং করা নিয়ে কিছু তথ্য
এটা অবশ্যই মানতে হয় যে মহিলারা তাদের চুল নিয়ে কিছু না কিছু এটা সেটা করতে ভালোবাসেন! তারা চুল কাটেন, লম্বা করেন, বেধেঁ রাখেন কিংবা খোলা রাখেন এবং সবচেয়ে বেশি চুলে রং করিয়ে থাকেন। কেউ কেউ সাদা চুল ঢাকতে রং করিয়ে থাকেন। যেকোন বড় মাপের ডিপার্টমেন্টাল স্টোরগুলোতে রেডিমেইড রং পাওয়া যায়, যা চুলে লাগিয়ে দিতে বিউটি পার্লারগুলো ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে বিভিন্ন বিকল্প ও সেবা প্রদান করছে। কিন্তু অধিকাংশ মহিলাই এ সম্পর্কে অবগত থাকেন না যে, এসব রং এ উপস্থিত রাসায়নিক পদার্থ চুলে দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতিকারক প্রভাব সৃষ্টি করে।

প্যারা-ফিনাইলিনিডিয়ামাইন(Para-phenylenediamine), যা সাধারণভাবে পিপিডি নামে পরিচিত তা স্থায়ী ও কমস্থায়ী চুলের রং গুলোর দুই-তৃতীয়াংশে উপস্থিত থাকে। গাঢ় চুলের রং এ এটি ব্যবহৃত হয়, যা অক্সিজেনের সাথে বিক্রিয়া ঘটিয়ে উজ্জ্বল ও দীর্ঘস্থায়ী রং সৃষ্টি করে। এটি ত্বকের সংস্পর্শে সৃষ্ট ডার্মিটাইটিস (ত্বকের প্রদাহ, যেখানে ত্বক প্রদাহ সৃষ্টিকারীর সংস্পর্শে আসে সেখানে হয়) হওয়ার পিছনে কাজ করে। আর তাই চুলের রং করার আগে ত্বকের অ্যালার্জি পরীক্ষা করার কথা বলা হয়। দুর্ভাগ্যজনকভাবে এ প্রতিক্রিয়াটি সম্পূর্ণরূপে অনিশ্চিত, অর্থাৎ আগে থেকে বলা যায় না। পিপিডির সাথে জড়িত সমস্যা হচ্ছে একবার ব্যবহারের পর এটি আপনার ত্বককে সংবেদনশীল করে তোলে। তাই যদি প্রথমবার ব্যবহার করার পর প্রতিক্রিয়া না ঘটে, তাহলে পরবর্তী ব্যবহারের প্রতিক্রিয়া হবে কী না তা বলা যায় না।

আরো একটি সমস্যা হচ্ছে সংবেদনশীলতা সৃষ্টি একদমই আগে থেকে বলা যায় না। প্রতি মাসে চুল রং করে কোনো প্রতিক্রিয়া না ঘটেই কেউ বছরের পর বছর কাটিয়ে দিতে পারেন, আবার প্রথমবার ব্যবহার করেই অনেকের ক্ষেত্রে প্রতিক্রিয়া ঘটতে পারে। প্রতিক্রিয়া সংঘটনের মাত্রাও কম-বেশি হয়ে থাকে এবং হালকা ফুসকুড়ি থেকে শুরু করে ত্বকের তীব্র ডার্মাটাইটিস সৃষ্টি হয়ে কোমাতে যাওয়ার মতো অবস্থাও সৃষ্টি হতে পারে।

যদিও চুলে রং করিয়ে কোমাতে যাওয়ার ঘটনা অত্যন্ত বিরল, তবে ডার্মাটাইটিসের কারণে চুলের গুণমান হ্রাস পাওয়া ও চুলের পরিমাণ হ্রাস পাওয়ার হার বেশি। দুর্ভাগ্যবশতঃ পিপিডি থাকে না এমন চুলের রং বাজারে অনেক কম পাওয়া যায় তবে চুল রং করার ৪৮ ঘন্টা পূর্বে ত্বকের অ্যালার্জি টেস্ট করিয়ে আপনি সুরক্ষা নিশ্চিত করতে পারেন। সেই সাথে মনে রাখবেন যে, মহিলারা হচ্ছেন শক্তিশালী ভোক্তাশ্রেণী। যদি চুলে রং করার পণ্য ও তার পিপিডি উপস্থিত নিয়ে আপনি অসন্তুষ্ট থাকেন, তাহলে সরাসরি তা কোম্পানিকে জানান এবং রং করার পথে বাধা দূর করতে ভালো সমাধান বের করতে চাপ সৃষ্টি করুন।

About the author

Maya Expert Team