উদ্বেগ মনোসামাজিক মানসিক স্বাস্থ্য

অ্যাংযাইটি (Anxiety)

অ্যাংযাইটি হল দুশ্চিন্তা বা ভয়ের মত কোন অস্বস্তিকর অনুভূতি যা তীব্রও হতে পারে আবার হালকা ধরনেরও হতে পারে।

সবারই কোন না কোন সময় এরকম হয়। পরীক্ষা, গুরুত্বপূর্ণ কোন সাস্থ্য পরীক্ষা বা চাকরির ইন্টার্ভিউের আগে দুশ্চিন্তা হতেই পারে বা ভয়ও লাগতে পারে। এরকম সময় এমনটা হওয়াই স্বাভাবিক।

কিন্তু অনেকেই এই দুশ্চিন্তা বা ভয়টাকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। তাদের সবসময়ই এমন অনুভূতি হতে থাকে যার ফলে তাদের ব্যাক্তিগত ও পেশাগত ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে। প্যানিক ডিজঅর্ডার, কোন কিছুর ভয় (ফোবিয়া), পোস্ট ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিজঅর্ডার, সোশাল অ্যাংযাইটি ডিজঅর্ডার এর মত অনেক জটিলতারই প্রধান লক্ষন দুশ্চিন্তা হওয়া।

আমরা এই নিবন্ধে শুধুমাত্র জেনারালাইযড আংযাইটি ডিজঅর্ডার (GAD) নিয়েই আলোচনা করব।

জেনারালাইযড অ্যাংযাইটি ডিজঅর্ডার (GAD)

GAD একটি দীর্ঘমেয়াদী জটিলতা যার ফলে নির্দিষ্ট কোন কারণে দুশ্চিন্তা হবার বদলে বলতে গেলে সবরকম পরিস্থিতিতেই দুশ্চিন্তা হয়। GAD আক্রান্ত ব্যাক্তি মোটামুটি সবসময়ই দুশ্চিন্তায় থাকেন এবং এর মাত্রা এতটাই বেশি যে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তারা শেষ কবে নিশ্চিন্তে ছিলেন সেটি মনে করতে পারেন না। GAD এর ফলে একেকজনের একেক রকম সমস্যা হতে পারে তবে অধিকাংশেরই অশান্তি, দুশ্চিন্তা, ঘুমাতে ও মনোযোগ দিতে সমস্যা হওয়ার মত মানসিক ও শারীরিক সমস্যাগুলো হয়।

কখন ডাক্তার দেখাবেন?

অনেক পরিস্থিতিতেই দুশ্চিন্তা হওয়া খুবই স্বাভাবিক তবে আপনার যদি নিয়মিত এরকম হতে থাকে এবং এর ফলে আপনার দৈনন্দিন জীবনযাপন ব্যাহত হয় তাহলে আপনার ডাক্তার দেখানো উচিত। আপনার ডাক্তার আপনাকে আপনার দুশ্চিন্তা ও ভয়ের কথা জিজ্ঞেস করে এবং আপনার লক্ষণগুলো দেখে বোঝার চেষ্টা করবেন যে আপনার GAD আছে কিনা।

GAD কেন হয়?

ঠিক কি কারণে GAD হয় নিশ্চিত করে বলা না গেলেও ধারণা করা হয় যে অনেকগুলো কারণের সমষ্টির জন্য GAD হয়। গবেষণা মতে এই কারণগুলো হলঃ

  • আবেগ ও আচরণের জন্য মস্তিষ্কের যে অংশগুলো দায়ী সেগুলো অতিমাত্রায় কাজ করলে
  • আপনার মানসিক অবস্থা নিয়ন্ত্রনের জন্য দায়ী কেমিক্যাল সেরোটনিন ও নোর‍্যাড্রেনালিন এর সমতা নষ্ট হয়ে গেলে
  • আপনি বংশানুক্রমে আপনার বাবামায়ের কাছ থেকে যে জিনগুলো পেয়েছেন সেগুলোর কারণে। গবেষণায় দেখা গেছে যে কারো নিকটাত্মীয়ের GAD থাকলে তারও এটি হবার ঝুঁকি পাঁচগুণ বেড়ে যায়।
  • পারিবারিক সহিংসতা, শৈশবে কোন প্রকার খারাপ আচরণ বা নিপীড়নের শিকার হবার মত কোন বেদনাদায়ক অভিজ্ঞতা থাকলে
  • বাতের ব্যাথার মত কোন দীর্ঘমেয়াদী কষ্টকর জটিলতা থাকলে
  • মাদকাসক্তি বা অনিয়ন্ত্রিত মদ্যপানের ইতিহাস থাকলে

তবে অনেকেরই এরকম কোন কারণ ছাড়াই GAD হতে পারে।

GAD কাদের হয়?

GAD বেশ সাধারণ একটি জটিলতা। সাধারণত এটিতে পুরুষদের থেকে নারীদের আক্রান্ত হবার হার কিছুটা বেশি । ৩৫ থেকে ৫৫ বছর বয়সীরাই সাধারণত এতে আক্রান্ত হন।

GAD এর চিকিৎসা

GAD এর ফলে আপনার দৈনন্দিন জীবনযাপন ব্যাহত হয়। তবে বেশ কিছু চিকিৎসার মাধ্যমে আপনার অবস্থার উন্নতি হতে পারে। যেমনঃ

  • সাইকোলজিকাল থেরাপি – যেমন, কগ্নিটিভ বিহেভিয়রাল থেরাপি (CBT)
  • ওষুধ- সিলেক্টিভ সেরোটনিন রিআপটেক ইনহিবিটর (SSRIs) এর মত বিষণ্ণতার ওষুধ দেয়া হতে পারে।

আপনি নিয়মিত ব্যায়াম করলে, কফি বা মদ্যপান কমিয়ে দিলে বা নিজে থেকেই দুশ্চিন্তা নিয়ন্ত্রন করা বিষয়ক কোন কোর্সে ভর্তি হলে দেখবেন যে কোন প্রকার চিকিৎসা ছাড়াই আপনার অবস্থার অনেক উন্নতি হয়েছে। চিকিৎসার সাহায্যে অনেকেই অ্যাংযাইটি বা দুশ্চিন্তা নিয়ন্ত্রনে সফল হয়েছেন। তবে কিছু কিছু চিকিৎসা দীর্ঘদিন ধরে চালিয়ে যেতে হয় এবং এর মধ্যে এমন কিছু সময় আসতে পারে যখন অবস্থার অবনতি হয়।

About the author

Maya Expert Team