নারী স্বাস্থ্য- প্রসব এবং পরবর্তী স্বাস্থ্য সংক্রান্ত লেবার প্রিপারাশন

সন্তান জন্মের প্রস্তুতি নিন

সন্তান জন্মের প্রস্তুতি নিন

  • সন্তানের জন্ম বাসায় হোক বা হাসপাতালে, তারিখের কয়েক সপ্তাহ আগে থেকেই প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি গুছিয়ে রাখুন।
  • হাসপাতালে বাচ্চা জন্ম দিলে হাসপাতালের নার্সই হয়ত আপনাকে প্রয়োজনীয় জিনিসের একটি তালিকা দিয়ে দিতে পারেন। যেমন –
  1. প্রসবের সময় পড়ার জন্য কিছু ঢিলে এবং আরামদায়ক কাপড় যেন আপনার গরম না লাগে। প্রসবের সময় তিনবারের মতন কাপড় বদলাতে হতে পারে।
  2. দুই তিনটি ঢিলে (দৈনন্দিন ব্যবহারের চেয়ে বড়) ব্রা (নার্সিং ব্রাও নিতে পারেন যদি বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর পরিকল্পনা থাকে)। মনে রাখবেন প্রসবের পর স্তন আকারে বৃদ্ধি পায়।
  3. দুই ডজন স্যানিটারি প্যাড।
  4. টুথব্রাশ, চিরুনী ও প্রসাধনীসহ একটি ব্যাগ।
  5. তোয়ালে।
  6. সময় কাটানোর জন্য নিতে পারেন বই, ম্যাগাজিন বা গান শোনার যন্ত্র।
  7. গরম লাগলে আরামের জন্য ওয়াটার স্প্রে।
  8. বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর সুবিধার্থে সামনে খোলা যায় এমন নাইটি।
  9. নরম রাবারের স্যান্ডেল এবং গাউন।
  10. পাঁচ ছয় জোড়া প্যান্ট বা পেটিকোট (যেন আপনি সুবিধামতন বদলাতে পারেন)।
  11. সন্তান জন্ম দেবার পর বাসায় ফেরার সময় পড়ার জন্য কাপড়।
  12. বাচ্চার জন্য কাপড়, ন্যাপি ও কাঁথা।
  13. বাচ্চাকে ঢেকে রাখার জন্য মোটা কাঁথা, বা কম্বল।

যাতায়াত

হাসপাতালে যাবার জন্য যানবাহন ঠিক করে রাখুন, কেননা যে কোন মুহূর্তে আপনার হাসপাতালে যেতে হতে পারে। গাড়িতে যাবার চিন্তা করলে গাড়িতে আগে থেকেই তেল বা গ্যাস ভরে রাখুন যেন প্রয়োজনের মুহূর্তে সমস্যা না হয়। যদি কোনও বন্ধু বা আত্মীয় স্বজনের ওপর নির্ভর করেন তবে বিকল্প ব্যবস্থা অবশ্যই রাখুন যেন তাকে না পাওয়া গেলেও আপনি হাসপাতালে পৌঁছাতে পারেন। গাড়ি না থাকলে ট্যাক্সি/ সিএনজি বা রিক্সায় যেতে পারেন। যদি আপনার বাসা থেকে হাসপাতাল/ ম্যাটার্নিটি অনেক দূরে হয় অথবা আপনি প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে থাকেন তবে আগে থেকেই ভ্যান/নৌকা/ রিক্সা ঠিক করে রাখুন যেন যে কোন সময়ে আপনি হাসপাতালে যেতে পারেন। হাসপাতালে যেতে কত সময় লাগতে পারে তা আগে থেকে হিসাব করে রাখুন এবং সে অনুযায়ী রওনা হোন। সম্ভব হলে হাসপাতাল থেকে এ্যাম্বুল্যান্স ডাকুন।

বাসায় প্রসব

যদি বাসায় সন্তান প্রসবের চিন্তা করে থাকেন তবে আগেই নার্স/ প্রশিক্ষিত দাই এর সঙ্গে কথা বলে রাখুন। বাসায় সন্তান প্রসবের জন্য স্থান নির্বাচন করুন। বাসায় প্রসবের জন্য যা যা লাগতে পারে –

  • পরিষ্কার কাপড় ও তোয়ালে।
  • বাচ্চার জন্য কাপড়, ন্যাপি, টুপি ইত্যাদি।
  • দুই ডজন স্যানিটারি প্যাড।

প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল বা যেখানে হাসপাতালে যাওয়া অনেক কষ্টসাধ্য এসমস্ত যায়গায় সাধারনত বাসায় ধাত্রী/ দাই এর সাহায্যে প্রসব বেশি হয়ে থাকে।

জরূরী নম্বর

যেখানেই প্রসব করান না কেন কিছু নম্বর আপনার হাতের কাছে বা ফোনে টুকে রাখুন –

  • আপনার বাবা-মা/ শ্বশুর-শ্বাশুড়ির নম্বর।
  • হাসপাতালে আপনার রেজিস্ট্রেশান নম্বর।

আপনার ফোন না থাকলে আপনার প্রতিবেশীর ফোন ব্যবহার করতে পারেন।

বাজার সদাই কিনে রাখুন

হাসপাতাল থেকে ফিরে আপনার বাচ্চাকে খাওয়ানো আর বিশ্রাম নেয়া ছাড়া আর কিছু করতে মন চাইবে না। তাই আগে থেকেই বাসার প্রয়োজনীয় জিনিস, বাজার সদাই করে রাখুন। সম্ভব হলে কিছু রান্না করে ডিপ ফ্রিজে ঢুকিয়ে রাখুন। বাচ্চার এবং আপনার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলোও কিনে রাখুন।

About the author

Maya Expert Team