নারী স্বাস্থ্য- প্রসব এবং পরবর্তী স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সংকোচন

প্রসব যন্ত্রণা এবং জন্মদান

প্রসব যন্ত্রণা এবং জন্মদান
অবশেষে এলো সেই ক্ষণ….

খুব শীঘ্রই আপনি আপনার জীবনের সবচেয়ে মূল্যবান জিনিস – একটি মানবশিশুকে পৃথিবীতে আনতে যাচ্ছেন। অধিকাংশ গর্ভবতী মায়েরা এই সময়টাতে ভয় পায়, আতঙ্কিত থাকে। তারা আসন্ন এই প্রসব বেদনা সইতে পারবেন কিনা, বা সুস্থ সন্তান জন্ম দিতে পারবেন কিনা এ নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভূগেন। প্রসব বেদনা প্রাকৃতিক একটা বিষয়। কারও কম হয়, কারও বা বেশি। এ থেকে পরিত্রাণের খুব একটা উপায় নেই। তবে ব্যথা কিছুটা কমানোর বেশকিছু উপায় এরই মধ্যে বেরিয়েছে। সবচেয়ে ভাল হয়, যদি সন্তান জন্মের আগেই আপনি জেনে নিন পুরো বিষয়টা সম্পর্কে, অর্থাৎ কি ঘটতে যাচ্ছে আপনার জীবনে। তাহলে প্রসব বেদনা শুরু হলে বিষয়টা জানা থাকার কারণে আপনি নিজেই অনেকটা সহজ হয়ে যাবেন।

এর পাঠকদের বলছি, আপনারা সবাই যার যার জায়গা থেকে নিজেদের মা হওয়ার অভিজ্ঞতার কথা জানান। যারা প্রথমবারের মতোন মা হতে যাচ্ছেন, তাদের কাছে তাহলে বিষয়টা অনেকটাই পরিস্কার হয়ে যাবে।

যারা মা হতে যাচ্ছেন তাদের বলছি – সন্তান জন্মের নির্ধারিত তারিখের নিম্নতম ২ সপ্তাহ আগেই আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয় জিনিস গুছিয়ে রাখতে হবে। এটা আপনি জেনে নিন এই অধ্যায়ে। আরও জেনে নিন এবং হাসপাতালের মেটারনিটি ওয়ার্ডে প্রসবের সময় কি কি লাগবে আপনার। আগে থেকেই জানুন প্রসবকালীন বিভিন্ন চিহ্ন – সম্পর্কে, যাতে করে প্রসব বেদনা শুরুর সাথে সাথেই আপনি নিজেকে মানসিকভাবে তৈরি করে নিতে পারেন। পাশাপাশি আপনি আমাদের এই Maya website এর বিভিন্ন section থেকে জেনে নিতে পারবেন সম্পর্কে। সেই সাথে কখন এবং কিভাবে আপনি সন্তান ‘পুশ’ করবেন সে সম্পর্কেও পরামর্শটুকু পেয়ে যাবেন।

প্রসবের তিনটি ধাপ। প্রথম ধাপে জরায়ুর মুখ ক্রমশ খুলে যায়। দ্বিতীয় ধাপে বাচ্চার মাথা নিচের দিকে চলে আসে এবং শিশু পৃথিবীতে ভূমিষ্ঠ হয়। তৃতীয় ধাপে জরায়ুর দেয়াল থেকে খুলে গিয়ে, যোনিপথ দিয়ে বের হয়ে আসে গর্ভফুল বা প্লাসেন্টা।

আপনার প্রসবের সময় কে আপনার সঙ্গে থাকছেন, তাও ঠিক করে নিন। তিনি আপনার স্বামী হতে পারেন, ঘনিষ্ঠ বান্ধবী বা আত্মীয়ও হতে পারেন। তবে যেই হোন না কেন, এসময়টাতে আপনাকে সাহায্য করার জন্য তাদের কিছু কিছু কৌশল জানা থাকা খুব প্রয়োজন। এসবই পাবেন এই প্রবন্ধটিতে।

About the author

Maya Expert Team