অটিজম বিশেষ চাহিদা

অটিজম – লক্ষণ

Written by Maya Expert Team

ASD যেহেতু অনেকগুলো অসুখের সমষ্টি তাই এর লক্ষণগুলোও নানাবিধ। অটিজম ও অ্যাস্পারগার সিন্ড্রোমের মত শিশুর বিকাশকে বাধাগ্রস্থ করতে পারে এমন অসুখের লক্ষণ সব বাবামায়েরই জেনে রাখা ভাল। আপনার শিশুর মধ্যে ASD এর কোন লক্ষণ দেখলে বা শিশুর বিকাশ নিয়ে কোন কারনে শঙ্কিত থাকলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন। আপনার শিশুকে বিশেষজ্ঞের কাছে নেবার সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আপনার শঙ্কাগুলো নিয়ে ভালভাবে আপনার শিশুর চিকিৎসকের সাথে আলোচনা করে নিন।

প্রি-স্কুলে যাবার বয়সী শিশুদের মাঝে ASD এর লক্ষণ

প্রি-স্কুল যাবার বয়সী শিশুদের ASD এর জন্য যেসব ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারেঃ

কথা বলার ক্ষেত্রে –

দেরীতে কথা বলতে শেখা ( যেমন দুই বছর বয়সে কম করে হলেও ১০টি ভিন্ন ভিন্ন শব্দ বলতে না পারা) বা একেবারেই কথা বলতে না পারা

শুধু নির্দিষ্ট কয়েকটি শব্দই বারবার বলা

খুব গম্ভীর বা একঘেয়ে সুরে কথা বলা

সম্পূর্ণ বাক্য বলতে পারা সত্ত্বেও শুধুমাত্র এক শব্দে কথার উত্তর দেয়া

অন্যদের কথার প্রতিক্রিয়ার ক্ষেত্রে –

ঠিকমত শুনতে পাওয়া সত্ত্বেও নিজের নাম শুনলে সাড়া না দেয়া

অভিভাবক বা বাবা মা কোলে নিতে চাইলে প্রত্যাখান করা। তবে তারা নিজে থেকেই অনেক সময় কোলে উঠতে চাইতে পারে।

কেউ কিছু করতে বললে খুবই অস্বাভাবিকভাবে প্রত্যাখান করা।

অন্যদের সাথে মেলামেশার ক্ষেত্রে –

অন্য মানুষের খুব বেশি কাছে অবস্থান করলে বা নিজের কাছে কেউ আসতে গেলে ক্ষুব্ধ হওয়া

সমবয়সীদের সাথে মেলামেশায় অনাগ্রহ

ঐ বয়সী শিশুরা যা উপভোগ করে সেগুলোর প্রতি অনাগ্রহ

অন্য কারো সাথে খেলার চেয়ে একা একা খেলতে বেশি পছন্দ করা

অধিকাংশ সময় একেবারেই কোন রকম অঙ্গভঙ্গি ছাড়া বা মুখের ভাবের কোন পরিবর্তন না করে কথা বলা

চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বলা এড়িয়ে চলা

আচরণের ক্ষেত্রে –

একই কাজ বারবার করা ( হাত নাড়ানো, নিজেই নিজেই সামনে পিছে দোলা, টোকা দেয়া বা আঙ্গুল নাড়ানোর মত কোন কাজ বারবার করা)

একেবারেই অসৃজনশীলভাবে এবং বারবার একই ভাবে খেলনা নিয়ে খেলা। যেমন ব্লক বা লেগো নিয়ে খেলার সময় নিজে থেকে সেগুলো দিয়ে কিছু না বানিয়ে প্রতিবারই সেগুলোকে রঙ বা আকার অনুযায়ী সাজিয়ে রাখা।

একই রকম রুটিনে চলতে পছন্দ করা এবং কোন কারনে রুটিনে পরিবর্তন হলে খুবই বিচলিত হয়ে যাওয়া

স্বাদ ছাড়াও রঙের ভিত্তিতে কিছু খাবার অত্যন্ত পছন্দ বা অপছন্দ করা

স্কুলে যাবার বয়সী শিশু এবং কিশোর-কিশোরীদের ক্ষেত্রে ASD এর লক্ষণ

একটু বড় শিশু এবং কিশোর-কিশোরীদের ASD এর কারনে যেসব ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারেঃ

কথা বলার ক্ষেত্রে –

কথা বলা এড়িয়ে চলা

খুব গম্ভীর বা একঘেয়ে ভাবে কথা বলা

নতুন কোন বাক্য গঠনের চেষ্টা না করে পূর্বপরিচিত শব্দসমষ্টি দিয়েই কথাবার্তা বলা

কারো সঙ্গে উভয়মুখী আলোচনার ভঙ্গিতে কথা বলার বদলে আদেশ বা নির্দেশনা দেয়ার ভঙ্গিতে কথা বলা

অন্যদের কথার প্রতিক্রিয়ার ক্ষেত্রে –

কোন প্রকার ঠাট্টা বা বাগধারা বোঝার অক্ষমতা

কেউ কিছু করতে বললে খুব অস্বাভাবিকভাবে প্রত্যাখান করা

অন্যদের সাথে মেলামেশার ক্ষেত্রে –

অন্য মানুষের খুব বেশি কাছে অবস্থান করলে বা তার কাছে কেউ আসতে গেলে ক্ষুব্ধ হওয়া

সমবয়সীদের সাথে মেলামেশায় অনাগ্রহ এবং বন্ধু বানানোর চেষ্টা করার পরেও তেমন কোন বন্ধু না থাকা

কাউকে স্বাগত জানানো বা বিদায় দেয়ার মত স্বাভাবিক আচার-আচরন করতে না পারা

কোথায় কিভাবে কথা বলতে হবে বুঝতে না পারা; যেমন পরিচিত মানুষের সাথে খুবই আড়ষ্ট হয়ে কথা বলা আবার একেবারেই অপরিচিত মানুষের সাথে আপনজনের মত ব্যাবহার করা

সমবয়সীরা যা উপভোগ করে সেগুলোর প্রতি আগ্রহ না থাকা

অধিকাংশ সময় একেবারেই কোন রকম অঙ্গভঙ্গি ছাড়া বা মুখের ভাবের কোন পরিবর্তন না করে কথা বলা

চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বলা এড়িয়ে চলা

আচরনের ক্ষেত্রে –

একই কাজ বারবার করা ( হাত নাড়ানো, নিজেই নিজেই সামনে পিছে দোলা, টোকা দেয়া বা আঙ্গুল নাড়ানোর মত কোন কাজ বারবার করা)

একেবারেই অসৃজনশীলভাবে এবং বারবার একই ভাবে খেলনা নিয়ে খেলা, এবং মানুষের সাথে খেলার চেয়ে কোন জিনিষ বা খেলনা নিয়ে খেলতে বেশি পছন্দ করা

কোন একটা নির্দিষ্ট কাজ বা জিনিষের প্রতি প্রচণ্ড আগ্রহী হওয়া

একই রকম রুটিনে চলতে পছন্দ করা এবং কোন কারনে রুটিনে পরিবর্তন হলে খুবই বিচলিত হয়ে যাওয়া

স্বাদ ছাড়াও রঙের ভিত্তিতে কিছু খাবার অত্যন্ত পছন্দ বা অপছন্দ করা

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment