নারী স্বাস্থ্য ও দেহতত্ত্ব পিসিওএস

পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোমের কারণসমূহ

Written by Maya Expert Team

পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোমের কারণসমূহ
পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম (পিসিওএস) হওয়ার সঠিক কারণ এখনো অজানা, তবে এটি হরমোনের মাত্রার অস্বাভাবিকতার সাথে সম্পর্কিত হতে পারে বলে ধারণা করা হয় ।


ইনসুলিন প্রতিরোধ
ইনসুলিন হলো অগ্ন্যাশয় থেকে উৎপন্ন হওয়া হরমোন যা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে , এটি শর্করাকে রক্ত থেকে কোষে নিয়ে যায় এবং সেখানে তা ভেঙে শক্তি উৎপন্ন হয় ।

শরীরের কোষগুলি যখন ইনসুলিনের প্রতি কোন প্রতিক্রিয়া দেখায় না অর্থাৎ ইনসুলিন শরীরের কোষের উপর কোন প্রভাব বিস্তার করতে পারে না তখন সে অবস্থাকে ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স বলে। কর্মক্ষমতা কমে যাওয়া ইনসুলিনের পরিমাণ পুষিয়ে নেয়ার জন্য শরীরে তখন অতিরিক্ত পরিমাণ ইনসুলিন উৎপন্ন হয়ে থাকে ।

উচ্চ মাত্রার ইনসুলিন উপস্থিতির কারণে ডিম্বাশয় থেকে তখন অতিরিক্ত টেস্টোস্টেরণ হরমোন নিঃসৃত হয় যা ফলিকল (ডিম্বাশয়ের যে থলিতে ডিম্বাণু উৎপন্ন হয়) তৈরির প্রক্রিয়াতে বিঘ্ন সৃষ্টি করে এবং এতে ডিম্বস্ফোটনের সাধারণ প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত হয় ।

ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্সের কারণে শরীরের ওজন বৃদ্ধি পায়, যা পিসিওসের উপসর্গসমূহকে প্রকাশিত হতে সাহায্য করে । কেননা অতিরিক্ত মেদ বা ওজন ইনসুলিনের পরিমাণ বৃদ্ধিতে আরো ত্বরান্বিত করে ।


হরমোনের তারতম্যতা
পিসিওএস এ আক্রান্ত অনেক মহিলার শরীরে কয়েকটি নির্দিষ্ট হরমোনের পরিমাণে অস্বাভাবিকতা দেখা যায়, যেমন-

টেস্টোস্টেরণ বৃদ্ধি- এ হরমোনকে যদিও পুরুষ হরমোন বলে ধরে নেয়া হয়, তারপরও মহিলাদের শরীরে এটি অল্প পরিমাণে উৎপ্নন হয়ে থাকে ।

লুটেইনিজিং হরমোন (এল এইচ) বৃদ্ধি- এ হরমোন ডিম্বস্ফোটন প্রক্রিয়াকে উদ্দীপিত করে, তবে পরিমাণে বেড়ে গেলে তা ডিম্বাশয়ে অস্বাভাবিক প্রভাব সৃষ্টি করে ।

সেক্স হরমোন বাইন্ডিং গ্লুবোলিন (এস এইচ বি জি) হ্রাস – এ হরমোন টেস্টোস্টেরণ পরিমাণ কমাতে সাহায্য করে ।

প্রোল্যাকটিন বৃদ্ধি (শুধুমাত্র পিসিওএস এ আক্রান্ত কিছু মহিলার ক্ষত্রে) – গর্ভাবস্থায় দুধ উৎপাদনের প্রক্রিয়ায় স্তন গ্রন্থিকে উদ্দীপিত করতে এ হরমোন সাহায্য করে ।

ঠিক কী কারণে হরমোনগত পরিবর্তন সাধিত হয় তা এখনো অজানা । এটা ধারণা করা হয় যে, সমস্যার শুরু ডিম্বাশয়ের নিজের ভিতরকার কোন ত্রুটির জন্য হতে পারে, বা ডিম্বাশয় যে হরমোন গুলো তৈরি করে, সে হরমোন গুলো আরো যে সব গ্রন্থি থেকে তৈরি হয় বা এই হরমোন গুলোকে নিয়ন্ত্রণকারী গ্রন্থি – সেইসব গ্রন্থির কোন সমস্যার জন্য হতে পারে, অথবা মস্তিষ্কের যে অংশ দ্বারা এসব হরমোনের উৎপাদন প্রক্রিয়া পরিচালিত হয় সেখানের কোন পরিবর্তনের কারনেও হতে পারে।


জীনগত কারণ
পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম (পিসিওএস) অনেক সময় পরিবারের সদস্যদের মধ্যেও বংশানুক্রমিক ভাবে চলতে পারে । মা, বোন অথবা খালা, ফুফু প্রভৃতি আত্মীয় যদি পিসিওএস এ আক্রান্ত হয়ে থাকেন, তাহলে আপনিও এ সিনড্রোমে আক্রান্ত  হওয়ার ঝুঁকিতে থাকবেন ।

এ থেকে ধারনা করা হয় যে পিসিওসের সাথে জেনেটিক সম্পর্ক থেকে থাকতে পারে, যদিও এ সমস্যার জন্য দায়ী নির্দিষ্ট জিনকে এখনো পর্যন্ত সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি ।

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment