বাল্যরোগ চিকিৎসা শিশুর যত্ন স্তন্যদান

বুকের দুধ সংরক্ষণ

বুকের দুধ সংরক্ষণ

যদি আপনি বাচ্চার জন্য বুকের দুধ সংরক্ষণ করে পরে অল্প অল্প করে খাওয়াতে চান তাহলে আপনাকে একটি জীবাণুমুক্ত পাত্রে তা সংরক্ষণ করতে হবে। বোতল জীবাণুমুক্ত করার উপায় সম্পর্কে আমাদের পাতাটি দেখুন।

আপনি বুকের দুধ সংরক্ষণ করতে পারেনঃ

৪° সেলসিয়াসে ফ্রিজে রেখে পাঁচ দিন পর্যন্ত

ফ্রিজের বরফ জমানোর জায়গায় রেখে দুই সপ্তাহ পর্যন্ত

ডীপফ্রিজে রেখে ছয় মাস পর্যন্ত

বরফ হয়ে যাওয়া বুকের দুধ স্বাভাবিক করতে হলে

জমিয়ে বরফ করে ফেলা বুকের দুধ বাচ্চাকে খাওয়ানোর আগে ফ্রিজের ভেতরেই যেখানে ঠাণ্ডা তুলনামূলকভাবে কম সেখানে রেখে গলিয়ে নিন। গলে যাবার পরে দেরি না করে দুধ বাচ্চাকে খাইয়ে দিন। কখনই জমাট অবস্থা থেকে গলিয়ে ফেলা দুধ আবার সংরক্ষণ করবেন না।

দুধ গরম করা

যদি ঠাণ্ডা দুধ খেতে আপনার বাচ্চার কোনরকম সমস্যা না হয় তাহলে তা ফ্রিজ থেকে বের করে সঙ্গে সঙ্গে তাকে খাইয়ে দিন। তবে যদি আপনার বাচ্চা পছন্দ করে তাহলে ঠাণ্ডা কমানোর জন্য ফীডারটি হালকা গরম পানিতে কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রেখে তারপর তাকে খেতে দিন। বরফ হয়ে যাওয়া দুধ গলানোর জন্য বা গরম করার জন্য মাইক্রোওয়েভ ওভেন ব্যবহার করবেন না, কারণ তাতে দুধ বেশি গরম হয়ে বাচ্চার মুখ পুড়ে যেতে পারে।

যদি আপনার শিশু হাসপাতালে থাকে

আপনার বাচ্চা নির্ধারিত সময়ের আগেই জন্ম নিলে বা অন্য কোন কারণে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে থাকার ফলে যদি আপনি বুকের দুধ ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে চান তাহলে সেটি কিভাবে সংরক্ষণ করবেন তা কর্তব্যরত চিকিৎসক বা নার্সকে জিজ্ঞেস করে জেনে নিন। নির্ধারিত সময়ের আগে জন্ম নেয়া বা অন্য কোন কারণে অসুস্থ বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর ব্যাপারে আরও তথ্য জেনে নিন।

About the author

Maya Expert Team