টিকা বাল্যরোগ চিকিৎসা শিশুর যত্ন

মৌসুমি ফ্লু টিকা যেভাবে তৈরি করা হয়

মৌসুমি ফ্লু টিকা যেভাবে তৈরি করা হয়

মৌসুমি ফ্লু ভ্যাকসিনে বিভিন্ন ধরণের ফ্লু ভাইরাস থাকে। প্রথমে এই ভাইরাস গুলোকেমুরগির ডিমে উৎপন্ন করা হয়। তারপর ভাইরাসগুলোকে মেরে ফেলে, নিষ্ক্রিয় এবং পরিশোধিত করে টিকা তৈরি করা হয়।

বর্তমানে তিন ধরণের টিকা প্রচলিত আছে যার প্রত্যেকটিই কার্যকর ও ফলপ্রসূ। যদিও এদেরকে ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতিতে তৈরি করা হয়ঃ

১. প্রথম ধরণের টিকা তৈরি হয় জৈব দ্রাবক বা ডিটারজেন্ট দ্বারা ভাইরাসকে নিষ্ক্রিয় করার মাধ্যমে। (একে Disrupted live vaccine বলে)

২. দ্বিতীয় ধরণের টিকা তৈরি হয় ফ্লু ভাইরাসের বিভিন্ন ক্ষতিকর উপাদান সরিয়ে ফেলে এবং পরবর্তীতে বিশুদ্ধকরণের মাধ্যমে। (একে Surface antigen vaccine বলে)

৩. তৃতীয় ধরণের টিকা তৈরি হয় ভাইরোসোম থেকে। ভাইরোসোম হল ফ্লু ভাইরাসের বাহিরের আবরনী, তবে এর ভেতরে আসল ফ্লু ভাইরাসের জিনগত উপাদানগুলো থাকে না ফলে এটি কোন ক্ষতি করতে পারে না।

ফ্লু ভাইরাসের গঠন প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হয় এবং ঋতুবদলের পর প্রতি বৎসর এক সম্পূর্ণ নতুন ধরনের ফ্লু এর প্রকোপ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে, তাই প্রতি বছরই নতুন ফ্লু টিকা তৈরির প্রয়োজন দেখা দেতস

ফ্লু টিকার গঠন কীভাবে নির্ধারিত হয়?

কোন একটি নির্দিষ্ট বছরে বিভিন্ন ফ্লু ভাইরাসের মধ্যে, কোন তিন ধরণের ফ্লু ভাইরাস সবচেয়ে বেশি হুমকিস্বরূপ দেখা দিতে পারে তা ঐ বছরের ফেব্রুয়ারিতেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) নির্ধারণ করে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পৃথিবীব্যাপী বিভিন্ন দেশে অবস্থিত গবেষণাগারে কয়েক হাজার ফ্লু ভাইরাস পরীক্ষা ও বিশ্লেষণ করে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পূর্ববর্তী বছরে ভাইরাসের কোন ধরণ (strain) টি সবচেয়ে শক্তিশালী এবং ক্ষতিকারক ছিল গবেষণাগারগুলি তা মূল্যায়ন করে। তার উপর ভিত্তি করে আগত বৎসরে কোন ধরনের (strain) নতুন ভাইরাস সৃষ্টি হতে পারে, তার ছড়িয়ে পরার সম্ভাবনা কতটুকু, এবং নতুন সৃষ্টি হওয়া এই ভাইরাসগুলো প্রতিরোধে প্রচলিত টিকাগুলো কতটুকু কার্যকর হবে তাও পরীক্ষা করে দেখে।

সম্ভাব্য ভাইরাসের ধরণ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দ্বারা ঘোষিত হওয়ার পর প্রতি বছর মার্চ মাসে টিকা তৈরির কার্যক্রম শুরু হয়।

টিকা কিভাবে ভাইরাস প্রতিরোধ করে?

ফ্লু টিকা গ্রহণের এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিনের মধ্যে শরীরে ভাইরাস প্রতিরোধী অ্যান্টিবডি তৈরি হওয়া শুরু হয়। অ্যান্টিবডি হল এক ধরনের প্রোটিনজাতীয় পদার্থ যা আপনার রক্তের মধ্যে অযাচিতভাবে প্রবেশ করা ক্ষতিকর জীবাণু যেমন ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে এবং একে ধ্বংস বা নিষ্ক্রিয় করে। পরবর্তীতে শরীরের সংস্পর্শে আসা একই রকম অন্যান্য ভাইরাসের বিরুদ্ধেও এটি প্রতিরোধ সৃষ্টি করে।

ফ্লু ভাইরাসের গঠন প্রতি বছরই পরিবর্তিত হয়, তাই ফ্লু থেকে নিরাপদ ও নতুন নতুন ফ্লু ভাইরাস থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে প্রতি বছরে একবার ফ্লু এর টিকা গ্রহণ করা উচিত।

About the author

Maya Expert Team