বাল্যরোগ চিকিৎসা শক্ত খাবার শিশুর যত্ন

নিরাপত্তা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা

ছোট বাচ্চারা সহজেই ব্যাকটেরিয়া সংক্রমনের শিকার হয় যা খাদ্যে বিষক্রিয়ার সৃষ্টি করতে পারে। কয়েকটি সহজ নির্দেশনা অনুসরণ করলে তাদেরকে নিরাপদ ও সুস্থ রাখতে পারবেন। খাবার তৈরির পূর্বে ভালোভাবে আপনার হাত পরিষ্কার করে নিন:

আপনার শিশুকে পোষা প্রাণী স্পর্শ করার পর, বাথরুমে যাওয়ার পর এবং খাবার খাওয়ার আগে হাত ধোয়ার শিক্ষা দিন।

খাবার তৈরির সময় খাবার কিংবা খাবার তৈরির স্থান থেকে পোষা প্রানীদের দূরে রাখুন এবং আশপাশের জায়গা পরিষ্কার রাখুন।

মাছ, মাংস, শাক, সবজি কাটার স্থান ও সরঞ্জামাদি সম্পূর্ণরূপে পরিষ্কার রাখুন।

রান্না করা মাংস ও কাঁচা মাংস ঢেকে রাখুন। এগুলো একে অপরের কাছ থেকে ও ফ্রিজের অন্যান্য খাবার থেকে দূরে রাখুন।

কাঁচা মাংস স্পর্শ করার পর আপনার হাত ভালোভাবে পরিষ্কার করুন।

খাবার খাওয়ার জন্য ব্যবহৃত সকল বাটি ও চামচ সাবানযুক্ত গরম পানি দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার রাখুন।

শিশুর অর্ধেক খাওয়া হয়েছে এমন খাবার সংরক্ষণ বা পুনরায় খাওয়ানোর জন্য রেখে দিবেন না।

খাবার গরম করার সময় খেয়াল রাখবেন যে এটি যেন সবদিক থেকে গরম হয় এবং শিশুকে খাওয়ানোর পূর্বে এটি ঠান্ডা করে নিবেন। যদি আপনি মাইক্রোওয়েভ ওভেন ব্যবহার করেন, তাহলে খাবার ভালোভাবে নেড়ে নিন এবং তাপমাত্রা যাচাই করে শিশুকে খেতে দিন। একবারের অধিক খাবার গরম করবেন না।

খাবার ভালোভাবে রান্না করুন এবং ঈষদুষ্ণ হওয়ার পর শিশুকে খেতে দিন।

আপেল, গাজর প্রভৃতি ফল ও শাকসবজি ভালোভাবে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে নিন।

কাঁচা ডিম পরিহার করুন। ডিমের কুসুম ও সাদা অংশ দৃঢ় ও শক্ত না হওয়া পর্যন্ত সিদ্ধ করুন।

খোলসযুক্ত শামুক খাদ্য হিসেবে গ্রহণ পরিহার পরুন।

শিশু টয়লেট করা কালীন সময়ে তাকে খাদ্য বা পানীয় দিবেন না।

খাদ্য সংরক্ষণ পুনরায় গরম করা

খাবার যত দ্রুত সম্ভব (সাধারণত ১/২ ঘন্টার মধ্যে) ঠান্ডা করে ফ্রিজ অথবা রেফ্রিজারেটরে রাখুন। ফ্রিজে রাখা খাবার ২ দিনের মধ্যে খাওয়া শ্রেয়। হিমায়িত খাদ্য গরম করার পূর্বে সম্পূর্ণরূপে বরফ গলিয়ে নেয়া উচিত। বরফ গলিয়ে নেয়ার সবচেয়ে নিরাপদ পদ্ধতি হল সারারাত সেটি ফ্রিজে রেখে দেয়া অথবা মাইক্রোওয়েভ ওভেনের ‘ডিফ্রস্ট’ পদ্ধতি ব্যবহার করা।

খাবার এমনভাবে গরম করুন যাতে সবদিক থেকে এটি গরম হয়, কিন্তু শিশুকে তা দেওয়ার পূর্বে ঠান্ডা করে নিতে ভুলবেন না। দ্রুত শীতল করার জন্য খাবার একটি বায়ুরোধী পাত্রে রেখে তা ঠান্ডা পানির কলের নিচে ধরে রাখুন। কিছুক্ষণ পর পর নেড়ে দিন যাতে এটি ধীরে ধীরে সবদিকে শীতল হয়ে যায়।

About the author

Maya Expert Team