ফিটনেস ফিটনেস মনোসামাজিক

ব্যায়াম না করার যত অজুহাত উড়িয়ে দিন

Written by Maya Expert Team

ভালো স্বাস্থ্য বজায় রাখা ও সুস্থ থাকার জন্য শরীরচর্চার অপরিহার্যতার কথা সবার জানা। কিন্তু যখনই শরীরচর্চা বা ব্যায়ামের প্রসঙ্গ আসে, তখন অনেকেই তা না করার বিভিন্ন অজুহাত দেখান। কখনো কখনো দৈনন্দিন কাজের ফাঁকে ব্যায়াম করার সময় পাওয়া যায় না, আবার কখনো শরীরচর্চা করার কোনো ইচ্ছাই জাগে না, ব্যায়াম না করার জন্য সর্বদাই বিভিন্ন ধরণের অজুহাত প্রস্তুত থাকে। এসব অজুহাত দেখানো থেকে মুক্তি পেতে এবং শরীরচর্চার রুটিন নতুনভাবে শুরু করতে নিচে কিছু টিপস উল্লেখ করা হলো।

১. আমি খুবই ব্যস্ত, আমার কাছে সময় নেই!

হ্যাঁ, আপনার কর্মজীবন খুবই ধরাবাঁধা এবং ব্যায়ামের জন্য সময় বের করা সত্যিই অসম্ভব তা আমাদের জানা। প্রথমেই, শরীরচর্চা-কে অগ্রাধিকার দিতে হবে। যেমন, দুপুরের খাবার যেভাবে বাদ দিতে পারবেন না, ঠিক তেমনিভাবে শরীরচর্চাকে প্রতিদিনের একটি প্রয়োজনীয় অংশ হিসাবে তৈরি করুন, যা আপনি বাতিল করতে পারবেন না। “মাত্র আধা ঘন্টা সময় শরীরচর্চার জন্য”- নিজেকে এমনভাবে বলুন। স্থানীয় শরীরচর্চার কেন্দ্র অর্থাৎ জিমে যাওয়ার জন্য সময় বের করুন এবং প্রতিটি যন্ত্র মাত্র ৩-৪ মিনিট ধরে ব্যবহার করুন। ছোট ছোট লক্ষ্য তৈরি করুন এবং শরীরচর্চা করার রুটিনকে সক্রিয় রাখার জন্য জিম ব্যবহার করুন।

২. শরীরচর্চা খুবই বিরক্তিকর

দিনের পর দিন বারবার যদি একই ব্যায়াম করে ক্লান্ত থাকেন কিংবা শরীরচর্চা যদি আপনার কাছে একঘেয়েমি ও বিরক্তিকর কারণ বলে মনে হয়, তাহলে আপনার রুটিনে এখন পরিবর্তন আনার সময় হয়েছে। নিয়মিত ব্যবহৃত ব্যায়ামের মেশিনে বিরক্তিবোধ করলে যোগব্যায়ামের মাদুরে বসে পড়ুন এবং যোগব্যায়াম বা ইয়োগা’র কয়েকটি অঙ্গভঙ্গি করার চেষ্টা করুন। উচ্চতর পর্যায়ে আপনি আনন্দদায়ক ব্যায়াম, যেমন দড়িলাফ বা নাচ বেছে নিতে পারেন। ব্যায়ামের সময় গান শোনারও চেষ্টা করে দেখতে পারেন। কখনো কখনো গান ব্যক্তির মনে আরো শরীরচর্চা করার আগ্রহ ও উৎসাহ জাগিয়ে তোলে।

৩. ব্যায়ামে কখনোই ফলাফল পাইনি!

কয়েকদিন ব্যায়াম করার পর কোনো পরিবর্তন নজরে না আসায় অনেকেই শরীরচর্চা বন্ধ করে দেন। ওজন হ্রাসের একটি সফল কর্মসূচি বা পরিকল্পনার জন্য শরীরচর্চার পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর ও সুষম খাদ্য গ্রহণ প্রণালী অনুসরণ করুন। “দিনে ৫-এর পরিকল্পনা” সম্পর্কে কী আপনি জানেন? ছোট ছোট ও বাস্তবধর্মী লক্ষ্য তৈরি করে নিন। এক মাসের মধ্যে ৪ থেকে ৫ কেজি ওজন কমিয়ে ফেলার চিন্তা করবেন না।

৪. জিম খুবই ব্যয়বহুল

জিমের সদস্য হওয়ার সামর্থ্য যাদের নেই, তারা বাসায় থেকে শরীরচর্চা করার পরিকল্পনা করতে পারেন। ঘরে বসে ব্যায়াম করার হরেক পন্থা রয়েছে। একটি ট্রেডমিল (দৌড়ানোর যন্ত্র) যদি কিনতে পারেন, তাহলে তা শরীরচর্চা করার মাধ্যমে শরীরের সামগ্রিক ওজন কমাতে সাহায্য করবে। স্টেপ বার, দড়িলাফের দড়ি, ডাম্বেল প্রভৃতি ছোটখাট ব্যায়ামের উপকরণও কিনে নিতে পারেন। বাসায় বসে ব্যায়াম (ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ) করার চেষ্টা করুন। প্রত্যেক ভোরে অনুপ্রাণিত হওয়ার জন্য, আপনার বিছানার সামনে ব্যায়াম করার সতর্কতামূলক কৌতুকপূর্ণ কোনো কাগজ লাগিয়ে রাখুন, যাতে প্রতিদিন ঘুম থেকে জাগার পর আপনার প্রথম কাজটি হয় ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ।

৫. কোথা থেকে শুরু করব তা বুঝতে পারিনা

যদি জিমে প্রথমবার গিয়ে থাকেন, তাহলে একটি স্বাস্থ্যকর সূচনার জন্য আপনার ট্রেইনার বা প্রশিক্ষককে বলুন। কখনো কখনো, বিশেষজ্ঞ দ্বারা প্রশিক্ষণের জন্য অতিরিক্ত মূল্য দিতে হয়। যদি তা আপনি দিতে অসমর্থ্য হন, তাহলে কম্পিউটারের সামনে বসে ইন্টারনেটে খুঁজুন। ব্যায়ামের জগতে নবাগতদের জন্য টিপস প্রদানের অসংখ্য উৎস ইন্টারনেটে রয়েছে। ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজের মতো সহজে করা যায় এমন ব্যায়াম দিয়ে শুরু করুন। শরীরকে চাঙ্গা করে তুলুন এবং এরপর কার্ডিয়ো ব্যায়াম করুন। প্রত্যেক সেশনের মধ্যে ৪-৫ মিনিট বিরতি নিন। সুস্থ থাকার আরো টিপসের জন্য এখানের ফিটনেস ও খাদ্য প্রণালি বিভাগ দেখুন। সেই সাথে “মায়া আপা”- কেও আপনি প্রশ্ন করতে পারেন।

৬. আপনি সেলেব্রেটিদের মতো নিখুঁত শারীরিক গঠন অর্জন করতে চান

যদিও সেরকম নিখুঁত গঠন অর্জন অসম্ভব নয়, তবে এর জন্য আপনাকে অনেক সময় দিতে হবে এবং ত্যাগ স্বীকার করে আত্মোৎসর্গ করতে হবে। অধিকাংশ সময় আমরা কর্মস্থলের, গৃহস্থালির কিংবা স্কুলের কাজের পাশাপাশি শরীরচর্চা করে থাকি। কিন্তু সেলেব্রেটি বা বিখ্যাত ব্যক্তিদের কাছে এই শরীরচর্চা বা ব্যায়ামই প্রথম এবং প্রধান কাজ হিসেবে প্রাধান্য পায়। তাই মাত্র ১ ঘন্টা জিমে কাটিয়ে যদি শীঘ্রই নিটোল ও পূর্ণাঙ্গ শারীরিক গঠন পাওয়ার লক্ষ্য তৈরি করেন, তাহলে শরীরচর্চার প্রতি আপনি আগ্রহ হারিয়ে ফেলবেন।

শরীরচর্চা না করার অজুহাত এড়িয়ে যাওয়ার জন্য উপরে পন্থাগুলো হচ্ছে সবচেয়ে ভালো পন্থা। আশা করি এই উপায়গুলো ব্যবহার করে আপনি আপনার অজুহাত কাটিয়ে উঠতে পারবেন।

 

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment