নারী স্বাস্থ্য- প্রসব এবং পরবর্তী স্বাস্থ্য সংক্রান্ত

বাচ্চা জন্মের পর সহবাস

Written by Maya Expert Team

বাচ্চা জন্মের পরপর ই বেশির ভাগ মহিলারাই প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করে্ন এবং অনেক দুর্বল বোধ করেন। আসলে বাচ্চা জন্মের পর আবার কখন সেক্স করা যাবে এর কোন নির্দিষ্ট সময় সীমা নেই। তবে অবশ্যই তাড়াহুড়া করা যাবেনা। বেদনাদায়েওক সেক্স মটেও কাম্য নয়।বাচ্চা জন্মের পর শরীর এ কিছু হরমোনাল তারতম্যের কারণে  যোনি পথ আগের থেকে বেশি শুকনা হয়ে থাকতে পারে।তাই এই সময় প্রচুর পরিমানে বাড়তি lubrication ব্যবহার করতে পারেন যেমন lubricating jelly -( এটি যেকোনো ফারমাসিতে আপনি পাবেন)।

বাচ্চা জন্মের পরপর আপনি আপনার  স্বাস্থ্য নিয়ে  চিন্তিত থাকতে পারেন এমনকি  আবার প্রেগন্যান্ট হয়ে পরার একটি আশঙ্কা আপনার ভিতর কাজ করতে পারে। অন্য দিকে  এই সময় কিছুটা ক্লান্তি বোধ করা ছারা বাচ্চার বাবাদের সেক্সুয়াল চাহিদা কিন্তু আগের মতই থাকে। তবে তারা তাদের স্ত্রীদের জন্য চিন্তিত থাকেন। এই সময় কি করা উচিত আর কি করা উচিত নয় সেগুলো নিয়ে দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে থাকেন।

সুতরাং আবার সহবাস শুরু করতে আপনাদের কিছুটা সময় লাগতে পারে। এই সময় আপনারা একে ওপরের ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্য উপভোগ করতে পারেন।

আপনার বা আপনার পার্টনার এর কোন কিছু নিয়ে কোন দুশ্চিন্তা থেকে থাকলে খোলাখুলি আলাপ করুন। কোন বিষয়ে সাহাজ্য লাগলে আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলুন।

নিচের কিছু উপদেশ আপনার কাজে আসতে পারেঃ

লিঙ্গ প্রবেশ  করার সময় ব্যথা পেলে তা অবশ্যই সাথে সাথে আপনার স্বামী কে জানাতে হবে। ব্যাথার কথা প্রকাশ না করে যদি লুকিয়ে রাখেন তাহলে ধীরে ধীরে আপনার কাছে সেক্স একটি অপ্রীতিকর ও বিরক্তিকর ব্যপার হয়ে উঠবে। লিঙ্গ প্রবেশ না করেও একে অপরকে আনন্দ দেয়া সম্ভব। যেমন পারশ্পরিক হস্তমৈথুন এর মাধ্যমে।

প্রথম কিছুদিন সেক্স করার আগে সাবধানতা অবলম্বন করুন। নিজের আঙ্গুল দিয়ে আগে পরিক্ষা করে দেখুন যে আপনার যোনি তে কোন ব্যথা অনুভব করেন কিনা। বাচ্চা জন্মের পর শরীর এ কিছু হরমোনাল তারতম্যের কারণে আপনার যোনি পথ আগের থেকে বেশি শুকনা হয়ে থাকতে পারে।তাই এই সময় প্রচুর পরিমানে বাড়তি lubrication ব্যবহার করতে পারেন যেমন lubricating jelly -( এটি যেকোনো ফারমাসিতে আপনি পাবেন)।

শারীরিকভাবে প্রস্তুত হবার চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে সহবাসের মানসিক প্রস্তুতি।সহবাসের পূর্বে আপনার সঙ্গীর সঙ্গে কথা বলা প্রয়োজন। তিনি এব্যাপারে কি চিন্তা ভাবনা করছেন তা খোলামেলা আলোচনা করা প্রয়োজন। একে অপরকে সময় দিন। আপনার পার্টনার এর কোন কিছু নিয়ে কোন দুশ্চিন্তা আছে কিনা সেগুলো জানার চেষ্টা করুন।

আপনি সময় নিন। বাচ্চা জন্মের দুই মাস পর ও যদি আপনি ব্যাথা অনুভব করেন তাহলে অবশ্যই আপনার ডাক্তার এর সাথে দেখা করে ওনার পরামর্শ নিবেন। বেদনাদায়ক episiotomy  সেলাই এর জন্য চিকিৎসা রয়েছে। একজন obstetric physiotherapist  এর সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

স্তন্যদানকারি মায়েদের ক্ষেত্রেঃ

ফোরপ্লে করার সময় বা আপনার স্তনে আপনার স্বামীর সোহাগপূর্ণ ছোঁয়ার কারণে আপনার স্তন থেকে বেশি  পরিমানে দুধ বের হতে পারে। আপনারা দুজনই যদি এটি স্বাভাবিক ভাবে নেন তাহলে ঠিক আছে। তবে যদি আপনাদের কাছে এটি বিব্রতকর লাগে তাহলে সহবাসের আগে বাচ্চাকে বুকের দুধ খাইয়ে নিবেন। তাহলে আপনার স্তনে দুধ কম জমা থাকবে।

জন্মদানের পর গর্ভনিরোধঃ

জন্মদানের পর, আপনার মাসিক আবার ফিরে না আসার আগেই বা আপনি বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানো অবস্থাতেই, ৩ সপ্তাহের ভিতর আপনি আবার গর্ভবতী হয়ে পরতে পারেন।

আপনি যদি আবার বাচ্চা নিতে ইচ্ছুক না হন তাহলে জন্মদানের পর সহবাসের সময় অবশ্যই জন্ম নিয়ন্ত্রন ব্যবস্থা গ্রহন করুন।   আপনি হাসপাতাল থেকে আসার আগে আপনার ডাক্তার আপনাকে এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে দিবেন। আবার আপনি যখন ৬ সপ্তাহ পর চেক আপ এ যাবেন তখন ও এই সম্পর্কে ডাক্তার এর সাথে বিস্তারিত আলাপ করে নিবেন। বা আপনি যেকোনো সময় আপনার ডাক্তারের সাথে এই বিষয়ে আলাপ করে নিতে পারেন।

 

মায়া বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে মায়া এন্ড্রয়েড এপ ডাউনলোড করুন এখান থেকে: https://bit.ly/2VVSeZa

 

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment