নারী স্বাস্থ্য- প্রসব এবং পরবর্তী স্বাস্থ্য সংক্রান্ত

নতুন মায়েদের জন্য বিশেষ কিছু টিপস

Written by Maya Expert Team

দেখতে দেখতেই আপনার বাচ্চা অতি দ্রুত বেড়ে উঠতে থাকবে। বেড়ে ওঠার এক একটি ধাপ সে দ্রুত অতিক্রম করতে থাকবে। এই পরিবর্তনের সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে হবে। কিন্তু আপনার নিজের উপর  বা বাচ্চার উপর কোন বাঁধা ধরা নিয়ম চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করবেন না।

দরকারের সময় অন্যের কাছে আপনার সাহায্য চেয়ে নিতে হবে। অনেকেই এই সময় আপনাকে সাহায্য করতে চাইবে।কেউ হয়তো শুধু বাচ্চাকে কোলে রাখতে চাইবে, কেউবা রান্না করে দিতে চাইবে, কেউবা ঘর পরিষ্কার করতে সাহাজ্য করতে চাইবে। তাই  কার জন্য কোন কাজ উপযুক্ত তা প্রথমেই ঠিক করে ফেলুন।  

বেশির ভাগ সময় আপনার ফোন বন্ধ রাখুন। এবং আপনার সুবিধা অনুযায়ী পরে ফোন করে নিন। আপনার বাচ্চা যখন ঘুমাবে তখন আপনিও ঘুমানোর চেষ্টা করবেন। আপনি যত বেশি বিশ্রাম নিবেন তত  বেশি সক্রিয়ভাবে কাজ করতে পারবেন। বাচ্চাকে কাঁধে বা পিঠে ঝুলিয়েও আপনি বাসার টুকিটাকি কাজ অনায়াসে করে ফেলতে পারবেন।

সম্ভব হলে প্রথম কয় মাস বাচ্চার কাপড়চোপড় ধোয়ার জন্য এবং ঘর পরিষ্কার করার জন্য একজন কাজের মানুষ রেখে নিবেন। যদি সেটি সম্ভব না হয় তাহলে পরিবারের অন্যন্য সদস্যদের কাছে সাহায্য চেয়ে নিতে হবে।

বাচ্চা জন্মের পর নিজের স্বাস্থ্য আবার আগের মত ফিরিয়ে আনার জন্য একজন মালিশ আলি কে দিয়ে নিয়মিত মাসাজ করানোর কথা মাথায় রাখতে পারেন।

নিয়মিত ব্যায়াম করার চেষ্টা করবেন। yoga ক্লাস বা gym এ যেতে পারেন। বাচ্চাকে pram  এ শুইয়ে সব যায়গায় হেঁটে চলাচল করার চেষ্টা করবেন।

এই সময় অন্যন্য মায়েদের সাথে সময় কাটালেও মানসিক সহায়তা পাবেন।

অনেক সময় আপনি ভেঙ্গে পরতে পারেন। সেই সময়ের জন্য নিজেকে আগে থেকেই প্রস্তুত রাখুন। সুশীল বাচ্চারাও অনেক সময় অনেক বেশি ঝামেলা করতে পারে। কিন্তু এগুলোকে নিজের অযোগ্যতা মনে করা চলবে না। নিজের ভিতর সবসময় একটি পসিটিভ মনোভাব রাখুন।

কিছু কিছু সময়ে কিছুই না করে বসে থাকুন। কিন্তু সেটি নিয়ে দোষী বোধ করবেন  না। আপনার ও কিছু নিজস্ব সময়ের প্রয়োজন আছে। আপনার বাচ্চার সান্নিধ্য উপভোগ করুন।

Image Courtesy: Mirror

 

মায়া বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে মায়া এন্ড্রয়েড এপ ডাউনলোড করুন এখান থেকে: https://bit.ly/2VVSeZa

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment